• জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি কেউ মেনে নেবে না: শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, "জেরুজালেমকে দখলদার ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বীকৃতি বিশ্বের কেউ মেনে নেবে না। এটি গোটা বিশ্বের কাছেই অগ্রহণযোগ্য। এখন মুসলিম বিশ্বের একটাই কাজ, ঐক্যবদ্ধ হওয়া। ঐক্যবদ্ধ হয়ে ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেয়া।"

আজ (বৃহস্পতিবার) গণভবনে পূর্বনির্ধারিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, "জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী করা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘোষণা কারো কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। এ বিষয়ে জাতিসংঘের স্পষ্ট রেজ্যুলেশন আছে, এই ঘোষণা সেটিকেই অগ্রাহ্য করল। কেউই এটা মেনে নেবে না। এটাই আমাদেরও বক্তব্য।"

প্রধানমন্ত্রী বলেন, "সবাইকে মনে রাখতে হবে, ফিলিস্তিনের রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া দাবি নয়, তাদের অধিকার। সবার উচিত তাদের স্বীকৃতি দেওয়া।"

তিনি বলেন, "এটা সবারই জানা ১৯৬৭ সালের যুদ্ধের পর পশ্চিম জেরুজালেমের ভূখণ্ডই ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়ার কথা ছিল। আমি মনে করি, এখনো তাদের সেটাই থাকা উচিত।"

প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আমেরিকার এই ঘোষণায় মধ্যপ্রাচ্য ফের অশান্ত হবে। ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে অশান্তি দেখা দেবে। আমেরিকাই তাদের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়া শুরু করেছিল, আবার তারাই অশান্তির সৃষ্টি করল।"

মুসলিম উম্মাহ বিক্ষুব্ধ, মর্মাহত ও বিস্মিত: জামায়াত

এদিকে, জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুসলমানদের অতি পবিত্র স্থান জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের ঘটনায় গোটা মুসলিম উম্মাহ বিক্ষুব্ধ, মর্মাহত ও বিস্মিত। তার এ স্বীকৃতি মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি পরিকল্পনাকে ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে। সারা বিশ্বের মুসলমানদের প্রথম কেবলা ও প্রাণের স্পন্দন পবিত্র মাসজিদুল আকসা জেরুজালেম শহরেই অবস্থিত। কাজেই জেরুজালেম শহরটি কখনো ইসরাইলের রাজধানী হতে পারে না। জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করে সারা বিশ্বের প্রায় পৌনে দুইশত কোটি মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত করা হয়েছে।"  

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের স্বীকৃতি প্রদানের প্রতিবাদে আগামীকাল (শুক্রবার) জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন অধ্যাপক মুজিবুর রহমান।#

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/৭

 

২০১৭-১২-০৭ ১৯:০১ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য