২০১৮-১২-২৭ ১৭:৪৬ বাংলাদেশ সময়
  • বাংলাদেশ হাইকোর্ট
    বাংলাদেশ হাইকোর্ট

বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ ও স্বতন্ত্র মার্কা নিয়ে   নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী জামায়াতে ইসলামীর ২৫ জন নেতার প্রার্থীতা প্রশ্নে কোনো নিষেধাজ্ঞা না দিয়ে হাইকোর্ট বরং রুল জারি করে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিদ্ধান্ত কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়েছে।

আজ (বৃহস্পতিবার) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি শেষে এই রুল জারি কেরেছ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি), নির্বাচন কমিশন সচিব, জামায়াতের ২৫ প্রার্থীসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদেশের পর প্রার্থীদের আইনজীবি ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেছেন, রুল বিবেচনাধীন থাকা অবস্থায় ২৫ জনকে নির্বাচনের অযোগ্য ঘোষণার আবেদন করা হয়েছিল রিটে। আদালত সে নির্দেশনা দেয়নি। ফলে ২৫ প্রার্থীর নির্বাচন করতে বাধা নেই।

গত ১৭ ডিসেম্বর জামায়াতের প্রার্থীদের নির্বাচনে স্থগিতাদেশ চেয়ে তরীকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরীসহ চারজন হাইকোর্টে একটি রিট দায়ের করেন। সেই রিটের প্রেক্ষিতে গত ১৯ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশনে ওই ব্যক্তিদের আবেদন নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের রুলের পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার ইসি সভার সিদ্ধান্ত জানিয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, ‘স্বাভাবিকভাবে জামায়াত ইসলামী নামে নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত কোনও দল নেই। তারা যে প্রক্রিয়ায় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে, তা পর্যালোচনা করে দেখেছে যে, এই প্রক্রিয়ায় তাদের প্রার্থিতা বাতিলের কোনো সুযোগ নেই। জামায়াতের ওই প্রার্থীরা ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে বিবেচিত হবে।

নির্বাচন কমিশনের এমন সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে জামায়াতের প্রার্থীদের ভোটে অংশগ্রহণে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে গতকাল বুধবার হাইকোর্টে একটি সম্পূরক আবেদন করেন সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরীসহ ওই চার ব্যক্তি।

আজ আদালতে এ আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর এবং ইসির পক্ষে ইয়াসিন খান। আর ধানের শীষ প্রতীকে মনোনয়নপ্রাপ্ত  প্রার্থীদের পক্ষে ছিলেন রুহুল কুদ্দুস কাজল।

উল্লেখ্য, জামায়াতের ২৫ প্রার্থীর মধ্যে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে রয়েছেন ২২ জন। আর স্বতন্ত্রভাবে আরও তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২৭   

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন

ট্যাগ

মন্তব্য