২০১৯-০২-১২ ১৮:০৯ বাংলাদেশ সময়
  • আনসার-ভিডিপি\'র কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী
    আনসার-ভিডিপি\'র কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংকট ও জরুরি নানা মুহূর্তে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর (ভিডিপি)দক্ষতা ও সফলতার প্রশংসা করে বলেছেন বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আনসার-ভিডিপি একটি সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বিশেষ ভূমিকা রেখেছে। একাদশ সংসদ নির্বাচনে দায়িত্ব পালনের সময় ৫ আনসার সদস্য নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) গাজীপুরের সফিপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে বাহিনীটির ৩৯তম জাতীয় সমাবেশ ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা উল্লেখ করনে।

প্রধানমন্ত্রী আরো উল্লেখ করেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে আনসার বাহিনীর ৬৭০ জন সদস্য শহীদ হয়েছিলেন। তাদের দেখানো পথে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধেও এই বাহিনী আন্তরিকভাবে কাজ করেছে। মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সবাইকে সবসময় সজাগ থাকতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে দেশকে দারিদ্র্যের অভিশাপ থেকে মুক্ত করা ।  এ লক্ষ্যে জনগণের সঞ্চয় বাড়ানোর বিষয়ে সরকার বদ্ধপরিকর। জনগণ যাতে সঞ্চয় বাড়াতে পারে সে লক্ষে 'একটি বাড়ি একটি খামার' প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে নিয়োজিত সদস্যদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য আনসার ভিডিপি ব্যাংক স্থাপন করা হয়েছে। এ ব্যাংক থেকে সদস্যগণ স্বল্প সুদে ঋণ নিয়ে বিভিন্ন আয়বর্ধক কাজে নিয়োজিত হতে পারেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী  বিশ্বের বুকে উন্নত জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সবার সহযোগিতা চান ।

 প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি উন্নত সমৃদ্ধ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চাই। তাই আসুন আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলি।’

সফিপুর আনসার একাডেমির ইয়াদ আলী প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৯তম জাতীয় সমাবেশের বর্ণাঢ্য কুচকাওয়াজের সালাম নেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, বাহিনীর মহাপরিচালক কাজী শরীফ কায়কোবাদ। প্যারেড পরিচালনা করেন প্যারেড কমান্ডার আইয়ুব আলী। এ সময়ে খোলা জিপে প্যারেড গ্রাউন্ড পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী।

পরে তিনি আনসার সদস্যদের নিয়ে একটি কেক কাটেন এবং তাদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। পরে আনসার-ভিডিপি সদস্যদের তৈরি বিভিন্ন হস্তশিল্পের স্টল ঘুরে দেখেন। এর আগে অনুষ্ঠানে কুচকাওয়াজের পর কৃতিত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে আনসার সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী।#

পার্সটুডে/আব্দুর রহমান খান/রেজওয়ান হোসেন/১২

 

ট্যাগ

মন্তব্য