২০১৯-০৪-২৫ ১৯:৪৩ বাংলাদেশ সময়
  • শেখ হাসিনা
    শেখ হাসিনা

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলার পর বাংলাদেশেও জঙ্গি হামলার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়ে  সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহী-ঢাকা রুটের নতুন বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন।

এসময় শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশেও এই ঘটনা ঘটানোর অনেক চেষ্টা চলছে। তবে আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা যথেষ্ট সর্তকতা অবলম্বন করে যাচ্ছে।’

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের কোনো তথ্য পেলে তা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানাতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসীরা পবিত্র ধর্মটাকে কলুষিত করছে। এই পবিত্র ধর্মটার বদনাম করছে সমগ্র বিশ্বব্যাপী। তারা ইসলামের কোনো ভালো কাজ করছে না; তারা আসলে ইসলাম ধর্মকে প্রশ্নবিদ্ধ করে ফেলেছে। ইসলাম ধর্মের তারা প্রচণ্ড ক্ষতি করে দিচ্ছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ইসলাম ধর্ম মানবতার ধর্ম, সবচেয়ে শান্তির ধর্ম। সেই ধর্মের নামে তারা জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে। এই ধরনের কাজে যারা সমৃক্ত তাদের বিরত থাকতে হবে। সে কারণেই আমি সকল অভিভাবক, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, বাংলাদেশের জনগণ এবং মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন যারা আছেন, ধর্মীয় শিক্ষাগুরু বা অন্য ধর্মবলাম্বী যারা তাদের প্রত্যেককেই আমি বলবো, যার যার আওতায় যে সমস্ত শিশু, কিশোর এবং যুবক যারা আছে, ছাত্র বা শিক্ষক যারা আছে, তাদের কেউ যদি সাধারণ মানুষের মধ্যে এ ধরনের প্রবণতা দেখা দেয় তাহলে সম্মিলিতভাবে এর বিরুদ্ধে সবাইকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি আহ্বান জানাচ্ছি।’

শ্রীলঙ্কা ও নিউজিল্যান্ডে নিহত মুসলমানদের জন্য দোয়া করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘আমি চাই, আগামীকাল শুক্রবার জায়ান চৌধুরীর নামে যে একটি শিশু মারা গেল এবং কয়েকদিন আগে নিউজিল্যান্ডে মসজিদের ভেতর ঢুকে আমাদের অনেক মুসলমানদের হত্যা করা হয়েছে, সেখানে বাংলাদেশিও ছিল। আর শ্রীলঙ্কার এই ঘটনা। পরপর যে ঘটনাগুলো ঘটছে আমি চাই, প্রত্যেকটা মসজিদে যেন দোয়া কামনা করা হয়।’

‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি উদ্বোধনের সময় রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে উপস্থিত ছিলেন রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) খন্দকার শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

উদ্বোধনের পর রাজশাহী স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে বিরতিহীন এই ট্রেনটি।

উল্লেখ্য, দেশের প্রথম ও সর্বাধুনিক হাইস্পিড ট্রেন হচ্ছে এই ‘বনলতা এক্সপ্রেস’। ট্রেনটিতে থাকছে ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা ১২টি নতুন বগি। ট্রেনটিতে মোট আসন সংখ্যা ৯৪৮। এর মধ্যে,শোভন চেয়ার সজ্জিত ৭টি বগিতে আসন সংখ্যা ৬৬৪টি। দুটি এসি বগিতে আসন থাকবে ১৬০টি।  

নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, ট্রেনটি রাজশাহী থেকে সকাল ৭টায় ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছাবে বেলা ১১টায়। আবার একইদিন ট্রেনটি রাজশাহীর উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে দুপুর দেড়টায়। রাজশাহী রেলস্টেশনে পৌঁছাবে বিকেল সাড়ে পাঁচটায়। খাবার মূল্য ১৫০ টাকাসহ শোভন চেয়ারের মূল্য ৪২৫ টাকা এবং এসি চেয়ারের মূল্য ৮৭৫ টাকা। এছাড়া ওয়াইফাই ইনটারনেট সুবিধা থাকবে প্রতিটি বগিতে।#

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/আশরাফুর রহমান/২৫

ট্যাগ

মন্তব্য