• এআইএডিএমকে নেত্রী শশীকলা
    এআইএডিএমকে নেত্রী শশীকলা

ভারতের তামিলনাড়ুতে ক্ষমতাসীন এআইএডিএমকে’র মধ্যে নেতৃত্ব নিয়ে মতবিরোধ যখন তুঙ্গে তখন সদ্য কারাবন্দি দলনেত্রী শশীকলাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তামিলনাড়ুর বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী পনিরসেলভাম ঘনিষ্ঠ এআইএডিএমকে’র সভাপতিমণ্ডলীর সাবেক চেয়ারম্যান ও সিনিয়র নেতা ই মধুসুদনন আজ শশীকলাকে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন।    

এআইএডিএমকে’র মহাসচিব শশীকলা আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।

তামিলনাড়ুর প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার পরে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন ও. পনিরসেলভাম। পরে শশীকলার নির্দেশে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন তিনি। রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসার প্রস্তুতি নেন শশীকলা নিজেই। কিন্তু পনিরসেলভাম বলেন, তাকে জোর করে পদত্যাগ করানো হয়েছে তাই তিনিই মুখ্যমন্ত্রী হবেন। এ নিয়ে শশীকলা এবং পনিরসেলভামের মধ্যে তীব্র মতবিরোধের জেরে পনিরসেলভামকে দল থেকে বহিষ্কার করেন শশীকলা।

পনিরসেলভাম গোষ্ঠীর সঙ্গে যোগাযোগ থাকার দায়ে দলীয় সভাপতিমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ই. মধুসুদননও বহিষ্কৃত হন। তিনিই আজ শশীকলাকে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন।  

গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হন শশীকলা ঘনিষ্ঠ ই. পালানিস্বামী। আগামীকালই তিনি আস্থা ভোটের মুখোমুখি হতে চলেছেন। কিন্তু তার আগেই শশীকলা এবং তার দুই ভাইপো দিনকরণ এবং এস ভেঙ্কটেশের দলীয় সদস্যপদও খারিজ করে দিয়েছেন মধুসুদনন   

ই. মধুসুদনন আজ (শুক্রবার) এক বিবৃতিতে দলীয় নীতি ও আদর্শ বিরোধী হওয়ার অভিযোগে শশীকলাকে প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বরখাস্ত করার ঘোষণা দেন। শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দলবিরোধী অনৈতিক কাজ করেছেন শশীকলা। আর তাই দলের পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।  

শশীকলা ঘনিষ্ঠ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ই. পালানিস্বামী এখন কীভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দেন সেটিই এখন লক্ষণীয়।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/১৭       

 

২০১৭-০২-১৭ ২০:০৪ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য