• কংগ্রেসের নবনির্বাচিত সভাপতি রাহুল গান্ধী
    কংগ্রেসের নবনির্বাচিত সভাপতি রাহুল গান্ধী

ভারতে বিজেপি গোটা দেশজুড়ে ক্ষোভ ও বিদ্বেষের আগুন জ্বালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন কংগ্রেসের নবনির্বাচিত সভাপতি রাহুল গান্ধী। আজ (শনিবার) দলীয় সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের সময় এক ভাষণে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

৪৭ বছর বয়সী রাহুল গান্ধী আজ ১৩২ বছরের পুরোনো কংগ্রেস দলের ৪৯তম সভাপতি হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। এসময় দিল্লিতে দলীয় সদর দফতরের সামনে কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে, স্লোগান দিয়ে ও আতশবাজি পুড়িয়ে ব্যাপক আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

দায়িত্ব গ্রহণের পর রাহুল গান্ধী দেশে ক্ষমতাসীন বিজেপি’র তীব্র সমালোচনা করে বলেন, ‘বিদ্বেষের আগুনকে একমাত্র কংগ্রেসই নিভিয়ে ফেলতে পারে। ওরা ধ্বংস করে, আমরা যুক্ত করি। ওরা জ্বালিয়ে দেয়, আমরা নিভিয়ে ফেলি। ওরা ক্ষুব্ধ হয়, আমরা ভালোবাসি। আমি আপনাদের বলতে চাই গোটা কংগ্রেস দল আমার পরিবার।’

রাহুল বলেন, ‘আজকের রাজনীতি থেকে দয়া অদৃশ্য হয়ে গেছে। রাজনীতিকে এখন জনগণকে দমন করার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।’

রাহুল গান্ধী দলীয় প্রেসিডেন্টের দায়িত্বভার গ্রহণ করায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা মনমোহন সিং বলেন, ‘কংগ্রেসের জন্য আজ এক ঐতিহাসিক দিন। রাহু দেশবাসীর সমস্যা জানেন। আমি আশা করছি রাহুলের নেতৃত্বে কংগ্রেস এক নয়া উচ্চতায় পৌঁছাবে।’

কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা ও রাজ্যসভার বিরোধী দলীয়নেতা গুলাম নবী আজাদ বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে তিনি দলীয় ভালো সভাপতি হিসেবে প্রমাণিত হবেন। দেশ যে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে তিনি তার মোকাবিলা করতে সক্ষম হবেন।’

সোনিয়া গান্ধী

রাহুলের মা সোনিয়া গান্ধী বলেন, ‘রাহুল আমার ছেলে, তার প্রশংসা করা আমার উচিত নয়। আমি শুধু এটাই বলতে চাই যে, সে শৈশব থেকে সহিংসতার প্রকোপে পড়েছে। রাজনীতিতে যোগ দেয়ার পরে তাকে ব্যক্তিগতভাবে কঠোর আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে। আমি তাকে এক শক্তিশালী ব্যক্তিত্ব হিসেবে উপস্থাপন করেছি। কোটি কোটি দেশবাসী ও যেসব কংগ্রেস কর্মী আমাকে ভালেবেসেছেন, এতদিন ধরে আমার সঙ্গ দিয়েছেন, তাদের সকলকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

রাহুল গান্ধীর আগে তার মা সোনিয়া গান্ধী কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/১৬ 

 

২০১৭-১২-১৬ ১৬:২২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য