• মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
    মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বাংলা কারো কাছে মাথা নত করে না, কারো চোখ রাঙানি সহ্য করে না। তিনি আজ (মঙ্গলবার) পূর্ব বর্ধমান জেলায় মাটি তীর্থে মাটি উৎসবের উদ্বোধন করে ওই মন্তব্য করেন।

মমতা কেন্দ্রীয় সরকারকে টার্গেট করে বলেন, "এটা রবীন্দ্রনাথের বাংলা, নজরুলের বাংলা। মোটা ভাত খাবো, মোটা রুটি খাবো কিন্তু কারো কাছে আত্মসমর্পণ করবো না। কারো কাছে মাথা বিকিয়ে দেবো না।"  

মমতা বলেন, বিশ্বের মধ্যে বাংলাই একমাত্র রাজ্য যারা মাটিকে ভালোবেসে সর্বপ্রথম মাটি উৎসবের কথা ঘোষণা করেছিল। আমরা ‘মাটি তীর্থ’ তৈরি করেছি। এখানে কৃষকদের মাটি কথা শোনানো হবে, প্রদর্শনী হবে, পরামর্শ দেয়া হবে।’

আমরা সিঙ্গুরের কৃষকদের জমি ফিরিয়ে দিয়েছি। সেখানে এখন সোনার ধান ফলছে। এটা আমাদের গর্ব। সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কমপক্ষে ৩০ লাখ কৃষকদের প্রায় ১ হাজার ২ শ’কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়েছে। কৃষকদের মধ্যে ৭৯ লাখ কিষাণ ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হয়েছে। আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে পরপর ৫ বার কৃষিকর্মণ পুরস্কার পেয়েছি।

কৃষি ঋণ দেওয়ার জন্য আমরা আমাদের সমবায় ব্যাঙ্কগুলোকে আমরা বলেছি, যাতে তারা বেশি করে লোণ দেয়।আমাদের সরকার প্রতি বছর ১৪ মার্চ কৃষক দিবস পালন করে। কৃষকরা আমাদের সম্পদ, আমাদের গর্ব। তারা ভালো থাকলে তবেই আমরা ভালো থাকব। মমতা এদিন, জেলায় যেসব উন্নয়ন কাজ হয়েছে তা বিস্তারিত তুলে ধরেন। 

আগামী ২৯ জানুয়ারি ৫ লাখ মানুষকে গ্রামীণ আবাস যোজনা প্রকল্পে বাংলার বাড়ি দেয়া হবে। ৩ লাখ মানুষকে গীতাঞ্জলি প্রকল্পের মাধ্যমে বাড়ি তৈরির জন্য আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন।#

পার্সটুডে/ এমএএইচ/বাবুল আখতার/২

   

 

২০১৮-০১-০২ ১৮:৫৭ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য