• ভারতের সাবেক প্রধান বিচারপতি জগদীশ  সিং খেহর
    ভারতের সাবেক প্রধান বিচারপতি জগদীশ সিং খেহর

হিন্দুত্ববাদী রাজনীতি ভারতকে বিশ্বশক্তি হওয়ার পথে বাধা সৃষ্টি করবে বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্টের সাবেক প্রধান বিচারপতি জগদীশ সিং খেহর। গতকাল (বৃহস্পতিবার) স্বাধীন ভারতের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রী স্মারক বক্তব্য দেয়ার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন।

বিচারপতি জগদীশ সিং খেহর বলেন, ‘আমরা সেক্যুলার থেকে বিশ্বশক্তি হতে পারি। কিন্তু আজকের পৃথিবীতে সাম্প্রদায়িক হয়ে কী আপনারা বিশ্বশক্তিতে পরিণত হতে পারবেন? ভারত বিশ্বশক্তি হওয়ার আকাঙ্ক্ষা রাখে। বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে যদি আপনি মুসলিম দেশগুলোর সঙ্গে বন্ধুত্বের হাত বাড়াতে চান তাহলে আপনি দেশে মুসলিমবিরোধী হতে পারেন না। যদি আপনি খ্রিস্টান দেশগুলোর সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে চান তাহলে খ্রিস্টানবিরোধী হতে পারেন না।’

তিনি বলেন, ‘আজ যা কিছু হচ্ছে তা ভারতের স্বার্থে হচ্ছে না। বিশেষ করে আমরা যদি সাম্প্রদায়িক মানসিকতা প্রদর্শন করি তাহলে তা ঠিক নয়।’

বিচারপতি খেহর জোর দিয়ে বলেন, ‘ভারত ইচ্ছাকৃতভাবে ১৯৪৭ সালে ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’কে বেছে নিয়েছিল, যদিও প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তান ইসলামী প্রজাতন্ত্রে পরিণত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এই পার্থক্যকে বুঝতে হবে।’

ভারতের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী লালবাহাদুর শাস্ত্রী ধর্ম, জাতি, জন্মস্থান, আবাস, ভাষা ইত্যাদি নিয়ে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বজায় রাখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছিলেন বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

প্রসঙ্গত, ভারত স্বাধীন হওয়ার পর লালবাহাদুর শাস্ত্রী উত্তর প্রদেশের সংসদীয় সচিব হয়েছিলেন। গোবিন্দ ব্ললভ পন্থের মন্ত্রিসভায় তিনি পুলিশ ও পরিবহণ মন্ত্রণালয়য়ের দায়িত্ব পেয়েছিলেন। মন্ত্রী থাকার সময় তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠি চালানোর পরিবর্তে পানি বর্ষণের ব্যবহার চালু করেন।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/১২

 

ট্যাগ

২০১৮-০১-১২ ১৬:৪৩ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য