• কোলকাতায় সেতু ভেঙে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, উদ্বিগ্ন মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কোলকাতায় মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) বিকেল পৌনে পাঁচটা নাগাদ আচমকা হুড়মুড়িয়ে সেতুটি ভেঙে পড়লে সেতুর নীচে থাকা যাত্রীবাহী যানবাহন ও সাধারণ মানুষজন ধ্বংসস্তূপের মধ্যে চাপা পড়েন।   

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওই ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে দার্জিলিং সফর কাটছাঁট করে কোলকাতায় ফেরার চেষ্টা করছেন।   

ক্রেনের সাহায্যে কংক্রিটের ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে আহতদের উদ্ধার করার চেষ্টা চলছে। বিপর্যয় মোকাবলা বাহিনী, কোলকাতা পুলিশ ও স্থানীয় মানুষজন উদ্ধার কাজে শামিল হয়েছেন।

আজ সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাজ্যের পুর ও নগরন্নোয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, কোলকাতার মেয়র শোভন  চট্টোপাধ্যায় ও পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা উদ্ধার কাজ তদারকি করছেন। আহতদের উদ্ধার করে কোলকাতার এসএসকেএম হাসপাতাল ও অন্যত্র ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় মানুষজন কমপক্ষে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করলেও সরকারিভাবে এ নিয়ে কোনো তথ্য এখনো প্রকাশ্যে আসেনি। 

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘একজনের মৃত্যুও দুর্ভাগ্যজনক। একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে। কেন ঘটেছে, কী ঘটেছে সেসব নিয়ে পরে আলোচনা করা যাবে এবং নিশ্চয়ই যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখন মানুষজনকে উদ্ধার করে তাদের রক্ষা করতে হবে, চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।’ 

রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, এ পর্যন্ত ছয় জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আরও কেউ চাঁপা পড়ে আছেন কী না দেখা হচ্ছে, আগে জীবন রক্ষা করতে হবে তারপরে প্রযুক্তিগত তদন্ত করা হবে। এখনই তদন্তের সময় নয়, আগে মানুষকে বাঁচাতে হবে।’ চল্লিশ বছর আগে ওই সেতু নির্মাণ করা হয়েছিল বলেও মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানান।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/৪ 

 

ট্যাগ

২০১৮-০৯-০৪ ২০:০২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য