২০১৮-১২-১৯ ১৫:০৫ বাংলাদেশ সময়
  • প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
    প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণকে কেন্দ্র করে ঘরে-বাইরে প্রবল চাপের মুখে পড়েছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার।

গতকাল (মঙ্গলবার) বিজেপি সংসদীয় দলের বৈঠকে উত্তর প্রদেশের দুই বিজেপি এমপি রবীন্দ্র কুশওয়াহা এবং হরি নারায়ণ রাজভর জানতে চান- রামমন্দির নিয়ে সরকার ও দল কী ভাবছে? রামমন্দির কবে নির্মাণ করা হবে?

তিনি দাবি করেন- রামমন্দিরের জন্য মানুষ উদগ্রীব হয়ে অপেক্ষা করছে। এসময় ওই দুই এমপিকে অন্যরাও সমর্থন করেন এবং রামমন্দিরের সঙ্গে আবেগ জড়িত রয়েছে বলে উল্লেখ করেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দলীয় সভাপতি অমিত শাহ সংসদীয় দলের ওই বৈঠকে অনুপস্থিত থাকায় সভাপতিত্ব করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিং। আচমকা দলীয় এমপিরা এভাবে রাম মন্দির নিয়ে সোচ্চার হওয়ায় রাজনাথ পরিস্থিতি সামাল দিতে সবাইকে অভয় দিয়ে বলেন, ‘সকলেই চায় রামমন্দির যত দ্রত সম্ভব হোক। আপনারা ধৈর্য ধরুন। এটা সকলের আবেগ।’

রাজনাথ সিং

অন্যদিকে, বিজেপি’ নেতৃত্বাধীন এনডিএ'র জোট শরিক জেডিইউ, অকালি দল এবং এলজেপি সম্প্রতি রাম মন্দির ইস্যুতে ভিন্নমত পোষণ করেছে যা বিজেপি’র কাছে বিড়ম্বনার কারণ হয়ে উঠেছে।

এনডিএ’র জোট শরিক জেডিইউ কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, ৩৭০ ধারা, রাম মন্দির, অভিন্ন দেওয়ানি বিধি এসব এজেন্ডা, উন্নয়ন মডেল নয়। তারা এনডিএ’র অংশীদার কেবলমাত্র উন্নয়নের কারণে।

অকালি দলের এমপি সতীশ গুজরাল বলেছেন, শহরের নাম পরিবর্তন করে দেওয়া, মন্দির নিয়ে হাইভোল্টেজ প্রচার নির্বাচনে জয় আনবে না।

এলজেপির এমপি চিরাগ পাসোয়ান সাফ জানিয়েছেন, ‘রাম মন্দির কোনও সরকারের এজেন্ডা হতে পারে না। উন্নয়নের যে কর্মসূচির ভিত্তিতে এনডিএ গঠিত হয়েছে, সেখানে কোথাও রামমন্দিরের জন্য অর্ডিন্যান্স আনার প্রতিশ্রুতি ছিল না। তাহলে কেন বেশি করে ওই প্রসঙ্গটি সামনে আনা হচ্ছে?’

এক্ষেত্রে অবশ্য এনডিএ জোট শরিকদের মধ্যে একমাত্র হিন্দুত্ববাদী শিবসেনা দ্রুত রাম মন্দির নির্মাণের সমর্থনে সোচ্চার হয়েছে। শিবসেনা এমপিরা সম্প্রতি সংসদ চত্বরেও প্ল্যাকার্ড হাতে ওই দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে চাপ সৃষ্টি করেছেন। এভাবে রাম মন্দির ইস্যুতে কার্যত ঘরে-বাইরে প্রবল চাপের মুখে পড়েছে নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এআর/১৯

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন

ট্যাগ

মন্তব্য