২০১৯-০৯-১০ ১৯:৪২ বাংলাদেশ সময়
  • ভারতে শোকাবহ আশুরা পালিত: শোকমিছিল বেরোতে পারেনি কাশ্মীরে

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার নারিকেল বেড়িয়াতে যথাযথ মর্যাদায় শোকাবহ আশুরা পালিত হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) প্রবল বর্ষণের মধ্যে ইতিহাস খ্যাত সাইয়্যেদ মীর নিসারআলী ওরফে তিতুমীরের স্মৃতিবিজড়িত নারিকেল বেড়িয়ায় আশুরাকে কেন্দ্র করে বাদুড়িয়া, স্বরূপনগর, বসিরহাট, দেগঙ্গা প্রভৃতি থানা এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষ সমবেত হন।

এদিন জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে সুসজ্জিত তাজিয়া মিছিল নারিকেলবেড়িয়ার কারবালা ময়দানে গিয়ে জমায়েত হয়। কারবালা কমিটির সম্পাদক সৈয়দ মদত আলী জায়দী রেডিও তেহরানকে বলেন, আশুরাকে কেন্দ্র করে আজ সকাল সাতটা থেকে সন্ধ্যে ৬ টা পর্যন্ত একটানা ধর্মীয় বিভিন্ন অনুষ্ঠান হয়েছে। এদিন, কুলিয়া, ঢালিপাড়া, নারিকেলবেড়িয়া, মান্দ্রা, আটলিয়া, বাগজোলা, চাতরা, রাজাপুর, কেওটশা, সন্নিয়া, প্রভৃতি এলাকা থেকে বিভিন্ন দল শোকাবহ আশুরার তাজিয়া মিছিলে অংশ নেয়।

স্থানীয় সাংবাদিক ওয়াসিম বারী রেডিও তেহরানকে বলেন, আশুরার শোকমিছিলকে কেন্দ্র করে এদিন কঠোর পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন শোক মিছিলের সঙ্গে থেকে শোকার্ত মানুষজনকে গন্তব্যস্থলে পৌঁছতে সাহায্য করেন। আশুরার মিছিল চলাকালীন প্রবল বর্ষা শুরু হলেও মানুষজন তাদের নির্দিষ্ট কর্মসূচি পালন করেন।

এদিকে আজ কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক বিধিনিষেধের জেরে আশুরার ঐতিহ্যবাহী শোকমিছিল বেরোতে পারেনি। গণমাধ্যমে প্রকাশ, সেখানে প্রতি পাঁচশো মিটার অন্তর ব্যারিকেড ও মোড়ে মোড়ে আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন থাকায় পথঘাট জনশূন্য ছিল।

শ্রীনগর মিউনিসিপ্যাল কমিটির সদস্য তনভির পাঠান অভিযোগ করেন, ‘আমরা নিজের এলাকায় গলিতে মিছিল বের করেছিলাম। নিরাপত্তারক্ষীরা পাহারা দিচ্ছিলেন। তারপরেই তারা টিয়ার গ্যাসের শেল ও ছররা গুলি নিক্ষেপ করে।’ রাস্তায় পানি বিতরণ করার সময় কয়েকজন যুবককে মারধরের অভিযোগও উঠেছে নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে, মধ্য প্রদেশের শাজাপুর জেলা সদরে সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে আশুরার মিছিলে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের পাথর নিক্ষেপের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও সহিংসতা হয়। এসময় দুর্বৃত্তরা কয়েকটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশকে এসময় লাঠিচার্জ করতে হয়। পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। পুলিশি নিরাপত্তায় অবশেষে মিছিল গন্তব্যস্থলে পৌঁছয়। জেলা পুলিশ সুপার পঙ্কজ শ্রীবাস্তব বলেন, অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পুলিশ মামলা রুজু করেছে। পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ ও নিয়ন্ত্রণে আছে বলেও তিনি জানান।#

পার্সটুডে/এমএএইচ/এমআরএইচ/১০

ট্যাগ

মন্তব্য