• তেহরানস্থ জাতিসংঘ দপ্তরের সামনে ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষকদের সমাবেশ
    তেহরানস্থ জাতিসংঘ দপ্তরের সামনে ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষকদের সমাবেশ

ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর গণহত্যার ব্যাপারে মুসলিম দেশগুলোর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সমাজকে সরব হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এসব শিক্ষার্থী তেহরানস্থ জাতিসংঘ দপ্তরের সামনে সমাবেশ করে এ আহ্বান জানিয়েছেন।

সমাবেশে দেয়া বক্তব্যে ছাত্র নেতারা বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে তৎপর সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর ব্যাপারে জাতিসংঘের দ্বৈত নীতির সমালোচনা করে বলেন, ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার পর জাতিসংঘ যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিল তার তুলনায় ইয়েমেন ও মিয়ানমারের গণহত্যার ব্যাপারে এই বিশ্ব সংস্থা কোনো প্রতিক্রিয়াই দেখায়নি।

সমাবেশে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন

সমাবেশে ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর রোহিঙ্গা বিরোধী অভিযানকে ‘মারাত্মক অপরাধযজ্ঞ’ হিসেবে অভিহিত করেন। তারা এ ব্যাপারে মুসলিম বিশ্ব বিশেষ করে পারস্য উপসাগরীয় আরব দেশগুলোর নীরবতার তীব্র নিন্দা জানান। ইরানি শিক্ষার্থীরা রোহিঙ্গা মুসলমানদের রক্ষায় অবিলম্বে এগিয়ে আসতে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা বা ওআইসি’র প্রতি আহ্বান জানান।

ইরানের প্রতিবাদী ছাত্ররা নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলমানদের সাহায্যের আবেদনে সাড়া দেয়ার জন্য বিশ্ববাসীর  প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিশ্ব সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলোর সুদূরপ্রসারি ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে।

বিক্ষোভ সমাবেশ ছাত্রদের অভিভাবক ও বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ অংশ নেন এবং মিয়ানমারে গণহত্যার নিন্দা জানান।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১১

২০১৭-০৯-১১ ০৬:৩৮ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য