ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে দেখতে এবং তাদেরকে সমবেদনা জানাতে ইরানের পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ কেরমানশাহ সফরে গেছেন প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। রোববার রাতে আঘাত হানা ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে কেরমানশাহ প্রদেশের সারপোলে জাহাব শহর সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট রুহানির সফরের আগেই ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুর রেজা রাহমানি ফাজলি, স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসান কাজিজাদেহ হাশেমি এবং রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান আলী আসগর পেইভান্দি বিশাল প্রতিনিধিদল নিয়ে গতকালই দুর্গত এলাকায় ছুটে গেছেন।

ভূমিকম্পে আহতদের উদ্ধার চলছে

এদিকে, কেরমানশাহ প্রদেশ সফরে যাওয়ার আগে প্রেসিডেন্ট রুহানি এক শোক বার্তায় বলেছেন, “এই বির্যয়ের শিকার হয়ে যেসব মানুষ আহত হয়েছেন আমি তাদের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি এবং যারা নিহত হয়েছেন সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।”

রেডক্রিসেন্ট ও সেনাবাহিনীর উদ্ধার অভিযান

ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্ধার ও চিকিৎসাসহ সব ধরনের সাহায্যের জন্য প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রাণলয় এবং সংস্থাকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ

রোববার রাতে কেরমানশাহ প্রদেশসহ ইরানের উত্তর-পশ্চিম সীমান্তবর্তী প্রদেশগুলোতে ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে এ পর্যন্ত ৪৩০ জন নিহত ও সাত হাজার ১৫৬ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘর-বাড়ি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত কিংবা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার বিষয়ে এখনো পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাওয়া যায় নি।#

পার্সটুডে/সিরাজুল ইসলাম/১৪

 

২০১৭-১১-১৪ ১২:৪৮ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য