• বক্তব্য রাখছেন সর্বোচ্চ নেতা
    বক্তব্য রাখছেন সর্বোচ্চ নেতা

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি বলেছেন, ফিলিস্তিন মুক্ত হবে এবং বায়তুল মোকাদ্দাসকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণার তৎপরতা থেকে তাদের অক্ষমতাই ফুটে উঠেছে। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, চূড়ান্তভাবে মুসলমানরাই বিজয়ী হবে।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নাবী উপলক্ষে তেহরানে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ইসলামি ঐক্য সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী শত শত বিদেশি অতিথি, মুসলিম দেশগুলোর রাষ্ট্রদূত ও ইরানের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদেরকে দেওয়া এক সাক্ষাতে তিনি আজ (বুধবার) এসব কথা বলেন।

সর্বোচ্চ নেতা আরও বলেছেন, ইসলামের শত্রুরা বায়তুল মোকাদ্দাস (জেরুজালেম)-কে দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করবে বলে দাবি করছে।  এ তৎপরতা থেকে তাদের  দুরবস্থা ও অক্ষমতাই ফুটে উঠেছে। মুসলিম বিশ্ব শত্রুদের ষড়যন্ত্র রুখে দেবে। ফিলিস্তিন ইস্যুতে শত্রুদের লক্ষ্য পূরণ হবে না বলেও তিনি ঘোষণা করেন। 

সর্বোচ্চ নেতা আরও বলেন, বর্তমানে মহানবী (সা.)'র নির্দেশিত পথ ও মুসলিম উম্মাহ'র বিরুদ্ধে যারা ঐক্যবদ্ধ হয়েছে তাদের মধ্যে সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকা ও বর্ণবাদী ইসরাইলের পাশাপাশি মুসলিম দেশগুলোর কিছু লম্পট ও চরিত্রহীনও রয়েছে। 

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি বলেন, আমেরিকা, ইহুদিবাদী ইসরাইল এবং তাদের অনুসারীরাই হচ্ছে বর্তমান যুগের ফেরাউন। তিনি আরও বলেন, আমেরিকার শাসক গোষ্ঠী এখন মধ্যপ্রাচ্যে নতুন যুদ্ধ বাধানোর চেষ্টা করছে। তারা নতুন যুদ্ধের মাধ্যমে ইহুদিবাদী ইসরাইলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায়। দুঃখজনকভাবে মধ্যপ্রাচ্যের কোনো কোনো দেশের শাসক ও নেতারা আমেরিকার সঙ্গে তাল মেলাচ্ছে। তিনি বলেন, যারা যুদ্ধ চায় এবং যুদ্ধই যাদের নীতি, তাদেরকে আমরা পরামর্শ দিচ্ছি। আমরা বলছি, জালিমদেরকে সহযোগিতা করার মাধ্যমে তারা নিজেরাই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। মধ্যপ্রাচ্যের কোনো কোনো সরকার যেসব কাজ করছে কুরআনের বক্তব্য অনুযায়ী তাদের ধ্বংস অনিবার্য।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ি আরও বলেছেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ঐক্যের পক্ষে এবং কোনো মুসলিম জাতির সঙ্গে ইরানের কোনো ধরণের বিরোধ নেই।#

পার্সটুডে/সোহেল আহম্মেদ/৬

২০১৭-১২-০৬ ১৫:৩০ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য