• ইসরাইলি পতাকায় আগুন দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা
    ইসরাইলি পতাকায় আগুন দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানে আজ (শুক্রবার) বিশ্ব কুদস দিবসের মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা একটি ইশতেহার প্রকাশ করেছেন। তারা ইহুদিবাদের দখলদারিত্ব থেকে নিরস্ত্র ও মজলুম ফিলিস্তিনিদের মুক্ত করার ওপর গুরুত্ব দিয়ে বলেছেন, ইসরাইল নামের ক্যান্সারকে বিশ্ব মানচিত্র থেকে মুছে ফেলতে হবে এবং এটি হচ্ছে ইসলামি বিপ্লবেরও মহান লক্ষ্য।

তেহরানে কুদস দিবসের মিছিলে 'ভি' চিহৃ দেখাচ্ছে এক শিশু

কুদস দিবসের ইশতেহারে বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। ইশতেহারে আরও বলা হয়েছে, পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাসের মুক্তি এবং নির্যাতিত মুসলিম ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতার বিষয়টিই এখনও গোটা মুসলিম বিশ্বের মূল ইস্যু। ফিলিস্তিন সংকটকে মুসলিম বিশ্বের কাছে গুরুত্বহীন করার যে কোনো পদক্ষেপ নিন্দনীয় এবং অগ্রহণযোগ্য।  

কুদস দিবসের মিছিলে সর্বস্তরের জনতা

ইসরাইলের 'ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি' প্রস্তাবের নিন্দা জানিয়ে ইশতেহারে বলা হয়, ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের প্রত্যাবর্তন, সব ফিলিস্তিনির অংশগ্রহণে গণভোট আয়োজন এবং ফিলিস্তিনের সব ভূখণ্ড পুরোপুরি মুক্ত করার মাধ্যমেই ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান হতে পারে। এর বিকল্প কোনো প্রস্তাব মানেই হলো ইহুদিবাদী ইসরাইলের দখলদারিত্ব ও অপরাধযজ্ঞ মেনে নেয়া এবং ফিলিস্তিনিদের ন্যায্য অধিকারকে পদদলিত করা। 

আমেরিকার পতাকায় আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা

মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের ইশতেহারে মুসলিম বিশ্বের সব দল ও সংগঠন এবং আলেম সমাজসহ সবাইকে ইসরাইলি ও মার্কিন ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। ইহুদিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া প্রতিটি মুসলমানের ধর্মীয় ও ঐতিহাসিক দায়িত্ব বলেও ঘোষণা করা হয়েছে।

ইসরাইলের পতাকায় আগুন

ইশতেহারে ইরাক ও সিরিয়ায় দায়েশ তথা তাকফিরি সন্ত্রাসীদের পরাজয়কে ইসলামি প্রতিরোধ ফ্রন্টের বড় বিজয় হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।#

পার্সটুডে/সোহেল আহম্মেদ/৮

 

২০১৮-০৬-০৮ ১৬:১১ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য