২০১৯-০২-০১ ১৯:১৮ বাংলাদেশ সময়
  • ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকচি
    ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকচি

ইরানের পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী ইউরোপীয় দেশগুলো তেহরানের সঙ্গে আর্থিক লেনদেনের যে বিশেষ চ্যানেল চূড়ান্ত করেছে তাকে স্বাগত জানিয়েছেন ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকচি।

এই আর্থিক চ্যানেল পূর্ণাঙ্গরূপে কার্যকর হবে এবং মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা সব পণ্যকে এর অন্তর্ভূক্ত করা হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। আরাকচি বলেন, ইউরোপ যে আর্থিক চ্যানেল খুলেছে তা তখনই পূর্ণাঙ্গ হবে যখন অ-ইউরোপীয় দেশ এবং কোম্পানিগুলিও তা ব্যবহার করতে পারবে।

ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল হওয়ার প্রায় নয় মাস পর অবশেষে বৃহস্পতিবার ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানি ওই নিষেধাজ্ঞাকে পাশ কাটিয়ে ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যিক ও আর্থিক লেনদেন শুরু করার জন্য বিশেষ আর্থিক চ্যানেল চালু করেছে।

বৃহস্পতিবার বুখারেস্টে ইনসটেক্স চালু করার ঘোষণা দিচ্ছেন তিন ইউরোপীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী

‘ইনসটেক্স’ (Instrument in Support of Trade Exchanges- INSTEX) নামের এই ব্যবস্থা চালু করার উদ্দেশ্য পরমাণু সমঝোতায় ইরানের যেসব আর্থিক সুবিধা পাওয়ার কথা ছিল তা নিশ্চিত করা। প্রাথমিকভাবে এই ব্যবস্থাটি ইরানে খাদ্য,ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম বিক্রির কাজে ব্যবহার করা হবে এবং ভবিষ্যতে এর পরিধি বাড়বে।

২০১৮ সালের মে মাসে আমেরিকা ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যায় এবং নভেম্বরে ইরানের তেল রপ্তানি ও ব্যাংকিং লেনদেনের ওপর নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করে। নিষেধাজ্ঞার ফলে বিদেশ থেকে পণ্য আমদানি করার ক্ষেত্রে মারাত্মক সমস্যার মুখোমুখি হয় তেহরান।

এ অবস্থায় তিন ইউরোপীয় দেশের চালু করা আর্থিক ব্যবস্থার মাধ্যমে যদি ইরান মার্কিন নিষেধাজ্ঞার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না পারে তাহলে এই ব্যবস্থার প্রতি ততটা আশাবাদী হওয়া যাবে না। বৃহস্পতিবার ওই তিনি দেশ এই বিশেষ আর্থিক ব্যবস্থার একটি রূপরেখা ঘোষণা করেছে মাত্র এবং কারিগরি দিক দিয়ে এটির আরো অনেক কাজ বাকি রয়েছে।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় ইউরোপীয় দেশগুলো যেসব প্রতিশ্রুতি দেয় তা রক্ষা করা বর্তমানে এসব দেশের জন্য মর্যাদার প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ‘ইউরোপীয়রা কথা দিয়ে কথা রাখে’ এটি প্রমাণ করা এখন এসব দেশের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এরই আলোকে ইনসটেক্স নামক বিশেষ অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে মূল্যায়ন করা উচিত বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১     

ট্যাগ

মন্তব্য