২০১৯-০৩-১৮ ০৯:০৩ বাংলাদেশ সময়
  • ইরানের ৬০তম নৌবহর (ফাইল ছবি)
    ইরানের ৬০তম নৌবহর (ফাইল ছবি)

ইরানি বাণিজ্যিক জাহাজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য বাব আল-মান্দাব প্রণালিতে নিজের ৬১তম নৌবহর পাঠিয়েছে ইরান। এই বহরে অন্যান্য যুদ্ধজাহাজের পাশাপাশি রয়েছে একটি ডেস্ট্রয়ার ও একটি রসদ সরবরাহকারী জাহাজ।

ইরানের নৌবাহিনীর দক্ষিণাঞ্চলীয় বহরের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আফশিন তাশাক রোববার বার্তা সংস্থা ইরনাকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এই নৌবহরে রয়েছে ‘সাবালান’ ডেস্ট্রয়ার ও ‘বন্দরআব্বাস’ রসদ সরবরাহকারী জাহাজ। এই নৌবহরকে শনিবার বন্দরআব্বাস থেকে বাব আল-মান্দাবে পাঠানো হয় বলে তিনি জানান।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইরানের তেল ট্যাংকারগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দেয়ার দু’সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে ইরানের ৬১তম নৌবহর বাব আল-মান্দাব প্রণালির দিকে যাত্রা শুরু করল।

রিয়ার অ্যাডমিরাল আফশিন তাশাক

নেতানিয়াহুর ওই হুমকির জবাবে ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি বলেছিলেন, তেল আবিব ইরানের তেল ট্যাংকারের ক্ষতি করার চেষ্টা করলে তাকে ‘দস্যুবৃত্তি’ বিবেচনা করে এর বিরুদ্ধে ‘কঠোর’ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অ্যাডমিরাল  তাশাক আরো বলেছেন, এডেন সাগর ও লোহিত সাগরের মধ্যে যাতায়াতকারী ইরানি বাণিজ্যিক জাহাজগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে এই নৌবহরের প্রধান লক্ষ্য। লোহিত সাগরের দক্ষিণ মাথায় অবস্থিত এই প্রণালি এই সাগরকে এডেন সাগর ও ভারত মহাসাগরের সঙ্গে যুক্ত করেছে। এডেন সাগর থেকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক জাহাজগুলো বাব আল-মান্দেব প্রণালি দিয়ে লোহিত সাগরে প্রবেশ করে এবং এরপর সুয়েজ খাল অতিক্রম করে ভূমধ্যসাগরে পৌঁছায়।

রিয়ার অ্যাডমিরাল আফশিন তাশাক আরো জানিয়েছেন, গত এক দশক ধরে আন্তর্জাতিক পানিসীমায় প্রায় ৬,০০০ তেল ট্যাংকারকে নিরাপত্তা দিয়েছে ইরানের নৌবাহিনী।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১৭    

ট্যাগ

মন্তব্য