• ফাইল ফটো
    ফাইল ফটো

অপরিশোধিত তেল কেনার বিষয়ে তুরস্ক সরকার শুধুমাত্র ইরাকের কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে চুক্তি করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য গণভোট অনুষ্ঠানের পর এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে তুর্কি সরকার। এটি আংকারার জন্য বড় ধরনের 'ইউ-টার্ন' বলে গণ্য করা হচ্ছে।

আজ (বৃহস্পতিবার) ইরাকি প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-এবাদি ও তুর্কি প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিমের মধ্যে টেলিফোন আলাপ হয়। ওই আলাপেই তুর্কি প্রধানমন্ত্রী কুর্দিস্তানের সঙ্গে তেল কেনার চুক্তি না করার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তেল কেনাসহ সব বিষয়ে ইরাক সরকারকেই সমথর্ন দেবে তুরস্ক। এর আগে আধা-স্বায়ত্ত্বশাসিত কুর্দিস্তান সরকারের কাছ থেকে তুরস্ক বড় অংশের অপরিশোধিত তেল কিনতো। এছাড়া, স্থল ও বিমানবন্দরের ওপর ইরাকের কেন্দ্রীয় সরকারের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার বিষয়েও বাগদাদকে সমর্থন দেয়ার কথা ঘোষণা করেছে তুর্কি সরকার।  

তেল বিক্রির অর্থ হচ্ছে কুর্দিস্তান সরকারের অর্থনীতির বড় শক্তি। কেইহান পাইপলাইন দিয়ে কুর্দিস্তান থেকে প্রতিদিন তুরস্কে সাড়ে ছয় লাখ বারেল তেল তুরস্কে রপ্তানি করা হয়। কিন্তু সোমবার অনুষ্ঠিত গণভোটের কারণে তুরস্ক ক্ষুব্ধ হয়েছে।#

 পার্সটুডে/সিরাজুল ইসলাম/২৮

 

২০১৭-০৯-২৮ ১৭:৩২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য