• ইহুদবিাদী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু
    ইহুদবিাদী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

বাইতুল মোকাদ্দাসকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে বক্তব্য দিয়েছেন তার বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী তীব্র প্রতিক্রিয়া সত্ত্বেও ইহুদবিাদী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ট্রাম্পের বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়েছেন।

তিনি বুধবার রাতে এক বার্তায় ট্রাম্পের ঘোষণাকে ইহুদিবাদীদের জন্য ‘ঐতিহাসিক’ বলে বর্ণনা করেন।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা ট্রাম্পের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে যেসব বক্তব্য দিয়েছেন সে বিষয়ের প্রতি ভ্রুক্ষেপ না করে নেতানিয়াহু বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করে তার নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি পূরণ করেছেন। বিশ্বের অন্যান্য দেশকেও একই রকম স্বীকৃতি দেয়ার আহ্বান জানান নেতানিয়াহু।

ডোনাল্ড ট্রাম্প-বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু (ফাইল ছবি)

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বুধবার সারা বিশ্বের বিরোধিতা ও প্রতিবাদ উপেক্ষা করে এবং আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ফিলিস্তিনের জেরুজালেম বা বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়েছেন।  

বুধবার হোয়াইট হাউজ থেকে দেয়া ঘোষণায় ডোনাল্ড ট্রাম্প আরো জানিয়েছেন, তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে সরিয়ে নেয়া হবে।

ট্রাম্প তার ঘোষণায় বলেন, “আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, বায়তুল মুকাদ্দাসকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়ার সময় হয়েছে। আগের সব প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী প্রচারণার সময় এ বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিতেন কিন্তু কেউ বাস্তবায়ন করেন নি। আমি বাস্তবায়ন করলাম।”

১৯৯৫ সালের ২৩ অক্টোবর ইসরাইলস্থ মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে বাইতুল মোকাদ্দাসে নেয়ার বিল পাস করে মার্কিন কংগ্রেস। কিন্তু বিশ্বজনমতের প্রবল আপত্তির কথা বিবেচনা করে এতদিন কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওই প্রস্তাব বাস্তবায়নের সাহস করেননি। ইহুদিবাদী ইসরাইল ১৯৬৭ সালের আরব-ইসরাইল যুদ্ধে জেরুজালেম বা বাইতুল মোকাদ্দাস শহর দখল করে নেয়।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/৭

 

২০১৭-১২-০৭ ০৭:১২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য