• রোববার ফিলিস্তিনি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন মাহমুদ আব্বাস
    রোববার ফিলিস্তিনি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন মাহমুদ আব্বাস

জেরুজালেম বা বায়তুল মুকাদ্দাসকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্প ট্রাম্পের কথিত মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনাকে ‘শতাব্দির সেরা থাপ্পড়’ বলে অভিহিত করেছেন ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

তিনি রোববার ফিলিস্তিনি কর্মকর্তাদের এক বৈঠকে এ মন্তব্য করেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে একটি ‘চূড়ান্ত সমঝোতা’য় পৌঁছার যে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তার প্রতি ইঙ্গিত করে মাহমুদ আব্বাস বলেন, “শতাব্দির সেরা ওই চুক্তি হচ্ছে শতাব্দির সেরা থাপ্পড় এবং আমরা এটি মেনে নেব না।”

স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রধান বলেন, “আমরা ট্রাম্পকে বলে দিয়েছি, আমরা আপনার প্রকল্প মেনে নেব না।”

তিনি ১৯৯০-এর দশকে স্বাক্ষরিত অসলো চুক্তি ‘ধ্বংস’ করার জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইলকে দায়ী করেন। অসলো চুক্তির মাধ্যমে মার্কিন মধ্যস্থতায় ইহুদিবাদী ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে কথিত শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল।

বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে রয়েছে মুসলমানদের প্রথম ক্বিবলা আল-আকসা মসজিদ

১৯৯৩ সালে স্বাক্ষরিত অসলো চুক্তিতে ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংকটের সমাধান এবং ফিলিস্তিনিদের স্বশাসনের অধিকারের নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছিল। ওই চুক্তির পর ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষ গঠিত হয় যার প্রেসিডেন্ট ছিলেন পিএলও’র তৎকালীন প্রধান ইয়াসির আরাফাত।

২০০৪ সালে তার রহস্যজনক মৃত্যুর পর মাহমুদ আব্বাস ওই কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ইসরাইল অধিকৃত জর্দান নদীর পশ্চিম তীরের ওপর স্বশাসন কর্তৃপক্ষের সীমিত নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গতমাসে জেরুজালেম বা বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন এবং মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে স্থানান্তর করা হবে বলে ঘোষণা করেন। ট্রাম্প হুমকি দিয়েছেন, তার এই ঘোষণা মেনে না নিলে ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রতি সহায়তা বন্ধ করে দেয়া হবে।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১৫

 

২০১৮-০১-১৫ ০৬:৫৯ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য