• বৃহস্পতিবার রাতে আল-মানার টেলিভিশনে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহর ভাষণ সরাসরি সম্প্রচারিত হয়
    বৃহস্পতিবার রাতে আল-মানার টেলিভিশনে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহর ভাষণ সরাসরি সম্প্রচারিত হয়

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর নেতা সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তার সংগঠন যুদ্ধ চায় না তবে কেউ আগ্রাসন চালালে যুদ্ধ করতে মোটেও ভয় পায় না হিজবুল্লাহ।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের জবরদখল থেকে দক্ষিণ লেবাননকে মুক্ত করার ১৮তম বার্ষিকী উপলক্ষে টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক ভাষণে তিনি এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন।

সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, লেবাননের প্রতিরোধ আন্দোলনের শক্তি উপলব্ধি করার পর ইহুদিবাদী ইসরাইল ২০০০ সালে দক্ষিণ লেবানন থেকে বিনা বাক্যব্যয়ে সরে পড়েছিল।

হিজবুল্লাহর প্রতিরোধ আন্দোলনের জের ধরে ২০০০ সালের ২৫ মে ইসরাইলি সেনারা দক্ষিণ লেবানন ছেড়ে পালিয়ে যায়। লেবাননের জনগণ দিনটিকে ‘প্রতিরোধ ও মুক্তি দিবস’ হিসেবে উদযাপন করে।

সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, ১৯৮২ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত ১৮ বছরের প্রতিরোধ সংগ্রামের ফসল হিসেবে দক্ষিণ লেবানন ইহুদিবাদীদের দখলমুক্ত হয়। সে সময়ের তুলনায় প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ এখন সেনা সংখ্যা ও সমরাস্ত্রের দিক দিয়ে বহুগুণে শক্তিশালী বলে তিনি উল্লেখ করেন। হিজবুল্লাহ মহাসচিব বলেন, প্রতিরোধ আন্দোলনকারীদের শক্তিমত্তা দেখে ইহুদিবাদী শত্রুরা যুদ্ধ করার মনোবল হারিয়ে ফেলেছে।

হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে আমেরিকা ও পারস্য উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের নিষেধাজ্ঞার প্রতি ইঙ্গিত করে সাইয়্যেদ নাসরুল্লাহ বলেন, এ নিষেধাজ্ঞার কোনো প্রভাব প্রতিরোধ সংগ্রামের ওপর পড়বে না। #

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/২৬

ট্যাগ

২০১৮-০৫-২৬ ০৫:০২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য