২০১৮-০৭-২৬ ১৯:৫৮ বাংলাদেশ সময়
  • সৌদি জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ
    সৌদি জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ

এডেন উপসাগরের বাবুল মান্দেব প্রণালী দিয়ে অস্থায়ীভাবে তেল রপ্তানি বন্ধ করেছে সৌদি আরব। সৌদি আরবের একটি যুদ্ধাজাহাজে ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ যোদ্ধাদের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর রিয়াদ এই ব্যবস্থা নিল।

গতকাল (বুধবার) সকালে ইয়েমেনের আল-মাসিরা টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছিল, আনসারুল্লাহ যোদ্ধারা সৌদি আরবের দাম্মাম যুদ্ধজাহাজের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। আরেক খবরে ইয়েমেনের সরকারি বার্তা সংস্থা সাবা জানিয়েছিল, হুথি আনসারুল্লাহ যোদ্ধারা হুদায়দা বন্দরনগরীর দক্ষিণে সৌদি জোটের আরেকটি যুদ্ধজাহাজে হামলা চালিয়েছে।

ইয়েমেনি নৌবাহিনীর সূত্র জানিয়েছে, সৌদি জোটের জাহাজে করে হুদায়দা বন্দরের দিকে অস্ত্র ও সেনা নেয়া হচ্ছিল। এছাড়া, ইয়েমেনি নৌবাহিনীর বরাত দিয়ে লেবাননের আল-মায়াদিন টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছে, অস্ত্রবাহী জাহাজে হামলার কারণে জাহাজটি সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস হয়েছে এবং এর সব আরোহী নিহত হয়েছে।

বাবুল মান্দেব দিয়ে জাহাজ চলাচল করছে (ফাইল ফটো)

এদিকে, সৌদি জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ গতকাল এক বিবৃতিতে দাবি করেছেন, হুথি যোদ্ধারা সৌদি আরবের খুব বড় দুটি তেলবাহী জাহাজে (ভিএলসিসি) হামলা চালিয়েছে। লোহিত সাগর দিয়ে জাহাজ দুটি যাচ্ছিল এবং প্রতিটি জাহাজে ২০ লাখ ব্যারেল তেল বহন করা হচ্ছিল। তিনি বলেছেন, বাবুল মান্দেব প্রণালী দিয়ে জাহাজ চলাচলের মতো নিরাপত্তা না ফিরে আসা পর্যন্ত ওই রুটে সৌদি আরব তেল রপ্তানি বন্ধ রাখবে।

খালিদ আল-ফালিহ জানিয়েছেন, হুথি হামলায় জাহাজ দুটির সামান্য ক্ষতি হয়েছে এবং সেগুলোকে কাছের কোনো সৌদি বন্দরে নেয়ার চেষ্টা চলছে।#

পার্সটুডে/সিরাজুল ইসলাম/২৬

ট্যাগ

মন্তব্য