• সৌদি হামলায় বিধ্বস্ত ইয়েমেনের স্কুলবাসের পাশে দাঁড়িয়ে একটি শিশু
    সৌদি হামলায় বিধ্বস্ত ইয়েমেনের স্কুলবাসের পাশে দাঁড়িয়ে একটি শিশু

ভুল স্বীকার করা সত্ত্বেও ইয়েমেনের স্কুলবাসে হামলার কথা অস্বীকার করছে সৌদি আরবের সেনারা। সৌদি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল তুর্কি আল-মালিকি বলেছেন, যে যানবাহনটিতে বিমান হামলা চালানো হয়েছে তা কোনো স্কুলবাস ছিল না। অথচ দু দিন আগে সৌদি আরব ওই হামলার জন্য ভুল স্বীকার করেছে।

তিনি ইয়েমেনের ওই যানবাহনকে সৌদি বিমান বাহিনীর জন্য ‘বৈধ লক্ষ্যবস্তু’ বলে উল্লেখ করেছেন। কর্নেল তুর্কি মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-কে গতকাল (রোববার) দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, হামলার শিকার যানবাহনটি স্কুলবাস ছিল না কারণ হামলার সময় কোনো স্কুল ছিল না। কর্নেল তুর্কি বলেন, “আমরা কোনো স্কুলবাসে হামলা করি নি বরং হুথি কমান্ডারদের বাসে বিমান হামলা চালানো হয়েছে।”

কর্নেল তুর্কি আল-মালিকি 

সৌদি হামলায় সম্প্রতি ইয়েমেনের একটি স্কুলবাস ধ্বংস হয় এবং ৫১ জন নিহত হয় যার মধ্যে অন্তত ৪০টি শিশু ছিল। গ্রীষ্মকালীন পরীক্ষা শেষে এসব শিশু ওই বাসে করে আনন্দ ভ্রমণে বের হয়েছিল।

বাসে যে বোমা দিয়ে সৌদি আরব হামলা চালায় সে বোমা দিয়েছিল আমেরিকা। গতকাল হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সৌদি আরবের কাছে সব ধরনের অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করার জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।#   

পার্সটুডে/এসআইবি/৩

২০১৮-০৯-০৩ ১৭:৪০ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য