• ড্রোন হামলার পরের অবস্থা
    ড্রোন হামলার পরের অবস্থা

ইয়েমেনের উপকূলীয় হুদাইদা প্রদেশের একটি কৌশলগত সামরিক অবস্থানে ড্রোন দিয়ে হামলা চালিয়েছে হুথি আনসারুল্লাহ সমর্থিত সেনারা। ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন কথিত আরব জোট যে বর্বর হত্যাকাণ্ড চালিয়ে আসছে তার জবাবে এ হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের দেশপ্রেমিক সেনারা।

হুথি আনসারুল্লাহ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গতকাল বিকেলে সেনারা দীর্ঘপাল্লার একটি ড্রোন দিয়ে সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনীর কমান্ড সেন্টারে হামলা চালায়। ড্রোনটি ছিল ইয়েমেনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি। তবে হামলায় কী ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা জানা যায় নি।

ইয়েমেনি ড্রোন

এর আগে, গত ২৭ আগস্ট ইয়েমেনের সেনারা দীর্ঘ পাল্লার ড্রোন দিয়ে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হামলা চালায়। এছাড়া, ২৬ জুলাই ইয়েমেনে আনসারুল্লাহ যোদ্ধা ও সেনারা সামাদ-৩ মডেলের ড্রোন দিয়ে আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হামলা চালিয়েছিল। সে সময় ড্রোন হামলার কারণে দেশি-বিদেশী ফ্লাইট বাতিল করতে বাধ্য হয়েছিল আমিরাত কর্তৃপক্ষ। ইয়েমেনে গত সাড়ে তিন বছর ধরে সৌদি আরব যে বর্বর আগ্রাসন চালিয়ে আসছে সংযুক্ত আরব আমিরাত হচ্ছে তার প্রধান সঙ্গী।#

পার্সটুডে/এসআইবি/১২

ট্যাগ

২০১৮-০৯-১২ ১৮:০৫ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য