• হামাসের অন্যতম মুখপাত্র হাজিম কাসিম
    হামাসের অন্যতম মুখপাত্র হাজিম কাসিম

গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, গাজায় যতদিন ইহুদিবাদী ইসরাইলের আগ্রাসন চলবে ততদিন ইসরাইলি নাগরিকদের নিরাপদে থাকতে দেয়া হবে না।

হামাসের অন্যতম মুখপাত্র হাজিম কাসিম দৈনিক আল-আরাবি আল-জাদিদ পত্রিকাকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে তেল আবিবকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, প্রতিরোধ সংগ্রামীরা ফিলিস্তিনি জনগণের অধিকার রক্ষার প্রশ্নে বিন্দুমাত্র পিছু হটবে না এবং নিজেদের মধ্যে ঐক্য ও সংহতি বজায় রেখে ইহুদিবাদীদের অপরাধযজ্ঞের জবাব দেবে।

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি বিমান হামলা

হামাসের মুখপাত্র বলেন, গাজায় যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার জন্য বিভিন্ন মহল মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছে। তিনি বলেন, মধ্যস্থতাকারীদের উচিত আগে তাদের সঙ্গে কথা বলা যারা আগে আগ্রাসন শুরু করেছে এবং এখনো অপরাধযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে।

এর আগে হামাসের রাজনৈতিক শাখার প্রধান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, ইহুদিবাদীদের আগ্রাসনের মুখে ফিলিস্তিনি জনগণকে রক্ষার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে প্রতিরোধ আন্দোলন।

ইসরাইলি সেনারা গত রোববার রাতে গাজা উপত্যকায় অনুপ্রবেশ করে হামাসের একজন কমান্ডারসহ সাত ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে। পরবর্তীতে ইসরাইলি সেনাদের হামলায় আরো ছয় ফিলিস্তিনি শহীদ হন। এই আগ্রাসনের জবাবে গত কয়েকদিনে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগ্রামীরা গাজা সংলগ্ন ইসরাইলি বসতিগুলো লক্ষ্য করে অন্তত ৫০০ রকেট ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছেন। এসব হামলায় অন্তত দুই ইহুদিবাদী নিহত ও বহু লোক আহত হয়েছে। হামাসের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সময় ইসরাইলি বসতিগুলোতে বিকট শব্দে সাইরেন বেজে ওঠে এবং এসব ক্ষেপণাস্ত্র কার্যত ইহুদিবাদীদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। #

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১৪

ট্যাগ

২০১৮-১১-১৪ ০৭:২০ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য