২০১৮-১২-১২ ১৬:৩৩ বাংলাদেশ সময়
  • শিয়া মুসলমানদের বিরুদ্ধে যেভাবে অপপ্রচার চালায় সৌদি আরব

শিয়া মাজহাবের বিরুদ্ধে অপপ্রচার অব্যাহত রেখেছে সৌদি সরকার। এখনও দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে বিশাল অংকের অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে।

এর আগে সৌদি আরবের রাজার নাতি প্রিন্স তুর্কি বিন বানদার বিন মুহাম্মাদ বিন আব্দুর রাহমান আলে সৌদ এক বৈঠকে জানিয়েছেন, সৌদি সরকার শিয়া মুসলমানদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাতে বিপুল অংকের অর্থ ব্যয় করা হয়। দেশটির গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়ের এ সংক্রান্ত বিশেষ বিভাগের যে বাজেট তা তিউনিশিয়া, জর্ডান ও ইয়েমেনের মোট বার্ষিক জাতীয় বাজেটের চেয়েও বেশি। 

ইসলামি শক্তিকে দুর্বল করতে বিশ্বের ধর্মবিরোধী শক্তি দীর্ঘ দিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় পাশ্চাত্যের মদদপুষ্ট সৌদি সরকার, মাজহাবগুলোর মধ্যে বিরোধ উসকে দিতে কাজ করছে। এ কাজে তারা কিছু বিভ্রান্ত ব্যক্তিকেও ব্যবহার করছে।

সৌদি রাজার নাতি আরও বলেছেন, সৌদি গোয়েন্দা মন্ত্রণালয় শিয়া মাজহাবের ক্ষতি করতে ওই মাজহাবের আলেম বলে দাবিদার কিছু ব্যক্তিকেও অর্থ দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেছেন, "আমি যখন গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়ে ছিলাম তখন আমাদের মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ ধরনের একজন আলেমকে সাত লাখ ডলার দেওয়া হয়। শিয়া মাজহাবের বিরুদ্ধে শিয়া নামধারী ব্যক্তিকে দিয়েই অপপ্রচার চালাতে এ কাজ করা হয়েছে। ওই অর্থ দিয়ে একটি টিভি চ্যানেল ও দৈনিক পত্রিকা প্রতিষ্ঠা করার কথা বলা হয়। ওই টিভি চ্যানেলের মিশন হবে ইমাম হোসেইন (আ.)'র শাহাদাৎ উপলক্ষে শোকানুষ্ঠানসহ বিভিন্ন চিন্তা-বিশ্বাস নিয়ে প্রশ্ন তৈরি করা এবং শিয়া মাজহাবের অবমাননা করা।" 

সৌদি এই প্রিন্সের মতে, শিয়া মাজহাব সম্পর্কে যেসব অপপ্রচার চালানো হয় তা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং এসবের কোনো ভিত্তি নেই। তার দাবি, এমন একটি চক্র সৌদি আরবকে চালায় যারা নামাজের সময় ছাড়া অন্য সময়টায় মাতাল অবস্থায় থাকে। জাতির সম্পদ লুট করে নর্তকী ও খুনিদের পেছনে ওই অর্থ ব্যয় করে।#

পার্সটুডে/১১   

ট্যাগ

মন্তব্য