২০১৮-১২-১৭ ১৬:৪৯ বাংলাদেশ সময়
  • বিমানবন্দরে ওমর আল-বাশিরকে (বামে) স্বাগত জানান সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ
    বিমানবন্দরে ওমর আল-বাশিরকে (বামে) স্বাগত জানান সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ

সিরিয়ায় ঐতিহাসিক সফর করেছেন সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বাশির। গতকাল (রোববার) তিনি সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে পৌঁছান। ২০১১ সালে সিরিয়া সংকট শুরুর পর এই প্রথম কোনো আরব নেতা সিরিয়া সফর করলন।

বিমানবন্দরে ওমর আল-বাশিরকে স্বাগত জানান সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ। পরে দুই নেতা আরব বিশ্বের চলমান পরিস্থিতি ও সংকট নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়া, দেশগুলোর সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান দেখানোর মধ্যদিয়ে নতুন করে আন্তঃআরব সম্পর্কের নীতি প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে তারা গুরুত্বারোপ করেন।   

সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বাশিরের সঙ্গে (বামে) বাশার আল-আসাদের বৈঠক

সুদানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকে বাশার আল-আসাদ বলেন, সৌদি নেতৃত্বাধীন কয়েকটি আরব দেশ সিরিয়া সংকটে অস্ত্র ও অর্থ সরবরাহ করে পরিস্থিতির অবনতি ঘটালে এবং তার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা সত্ত্বেও আরব পরিচয়ের ওপর প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে দামেস্ক। তিনি আরো বলেন, কিছু আরব দেশ পশ্চিমা দেশগুলোর ওপর যে নির্ভরতা তৈরি করেছে তাতে তারা লাভবান হতে পারবে না বরং এক্ষেত্রে আরব জাতীয়তাবাদ ও আরব জনগণের স্বার্থকে প্রাধান্য দেয়া উচিত।

বৈঠকে সুদানের প্রেসিডেন্ট বলেন, সিরিয়াকে দুর্বল করার অর্থ হচ্ছে আরবদেরকে দুর্বল করা। গত কয়েক বছর ধরে যা ঘটেছে তা এ বাস্তবতা থেকে মোটেই আলাদা কিছু নয়। তিনি আশা করেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিরিয়া তার জীবনীশক্তি পুনরুদ্ধার করবে এবং আঞ্চলিক দেশ হিসেবে তার ভূমিকা রাখবে। পাশাপাশি দেশটির জনগণ বিদেশি হস্তক্ষেপ ছাড়াই নিজেদের ভবিষ্যত নিজেরা ঠিক করতে সক্ষম হবে। গতকালই ওমর আল-বাশির সুদানে ফিরে গেছেন বলে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।#    

পার্সুটডে/এসআইবি/১৭

ট্যাগ

মন্তব্য