২০১৯-০৩-২১ ১৭:৫০ বাংলাদেশ সময়
  • আমিরাতের নির্মাণাধীন পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে কঠোর অভিযোগে কাতার

সংযুক্ত আরব আমিরাত বা ইউএই'র নির্মাণাধীন পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা এবং পরিবেশের প্রতি মারাত্মক হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে অভিযোগ করেছে কাতার। আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ'র কাছে জানানো লিখিত অভিযোগে এ কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য আন্তর্জাতিক সংস্থাটিকে হস্তক্ষেপ করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

২৪ বিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ ব্যয়ে এ পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি বারাকায় নির্মাণ করছে আমিরাত। কাতারের অভিযোগ বলা হয়েছে, বারকা পরমাণু বিদ্যৎ কেন্দ্র থেকে দুর্ঘটনায় কারণে তেজস্ক্রিয়  বিকিরণ ছড়িয়ে পড়লে তা পাঁচ থেকে ১৩ ঘণ্টার মধ্যে দোহায় পৌঁছে যাবে। সাগরের নোনা পানিকে শোধন করে বিশুদ্ধ পানির প্রয়োজন মেটায় কাতার এবং  এ ভাবে তেজস্ক্রিয় বিকিরণ ছড়িয়ে পড়লে তা আঞ্চলিক পানি সরবরাহ ব্যবস্থার ওপর প্রাণঘাতী প্রভাব ফেলবে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। ইউএইএ'র মহাপরিচালক ইউকিয়া আমানোর কাছে লেখা চিঠি এ সব অভিযোগ করেছে কাতার।

দুর্যোগ মোকাবেলা পরিকল্পনা, স্বাস্থ্য, পরিবেশ রক্ষা এবং নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে কাতারের সঙ্গে প্রতিবেশী দেশগুলোর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সহযোগিতার অভাব রয়েছে। ফলে তা মারাত্মক হুমকি হয়ে দেখা দেবে।

কাতার আরো বলেছে, পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে যে প্রযুক্তি আশ্রয় নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত তা প্রচলিত নয়। একমাত্র দক্ষিণ কোরিয়ায়ই কেবল ধাঁচের একটি বাণিজ্যিক পরমাণু চুল্লি আছে।

অবশ্য, এর আগে আমিরাত দাবি করেছে, আন্তর্জাতিক মান এবং উত্তম কর্মধারা মেনেই পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করছে তারা।#      

পার্সটুডে/মূসা রেজা/২১

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন 

 

ট্যাগ

মন্তব্য