২০১৯-০৩-২৬ ১৯:৩১ বাংলাদেশ সময়
  • ইয়েমেনে বিক্ষোভ
    ইয়েমেনে বিক্ষোভ

সৌদি সামরিক আগ্রাসন শুরুর বার্ষিকী উপলক্ষে ইয়েমেনের রাজধানী সানাসহ বিভিন্ন শহরে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। সানার বিক্ষোভে লাখ লাখ মানুষ অংশ নিয়েছে বলে আল-মাসিরা টিভি চ্যানেল জানিয়েছে। এছাড়া সা'দা, তায়িজ, ইব, বায়দা ও রায়মা শহরেও হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ গতকাল থেকে শুরু হয়ে আজও অব্যাহত রয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা সৌদি আরবের পাশাপাশি ইহুদিবাদী ইসরাইল ও আমেরিকার বিরুদ্ধেও স্লোগান দিয়েছে। এ সময় তাদের হাতে ইয়েমেনের জাতীয় পতাকা এবং আগ্রাসবিরোধী নানা বক্তব্য লেখা প্ল্যাকার্ড শোভা পাচ্ছিল।

রাজধানী সানার বিক্ষোভ সমাবেশে ইয়েমেনের সর্বোচ্চ বিপ্লবী কমিটির প্রধান মোহাম্মাদ আলী আল হুথি বলেছেন, ইয়েমেনি জাতি শেষ পর্যন্ত শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবে এবং শত্রুরা পরাজিত হবে। সৌদি আরব ও তার সহযোগীরা ইয়েমেনে চার বছর ধরে হামলা চালিয়েও কোনো কিছু অর্জন করতে পারে নি বলে তিনি মন্তব্য করেন। এ সময় তিনি গোলান মালভূমিকে দখলদার ইসরাইলের ভূখণ্ড হিসেবে ঘোষণা করায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমালোচনা করেন।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে ইয়েমেনের ওপর সামরিক আগ্রাসন শুরু করে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ আগ্রাসনে সার্বিক সমর্থন দিয়ে আসছে আমেরিকাসহ কয়েকটি দেশ। ইয়েমেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত চার বছরের হামলায় ১২ হাজার ইয়েমেনি নিহত ও ২৬ হাজার আহত হয়েছে। 

এ যুদ্ধ শুরু করার প্রধান লক্ষ্য ছিল ইয়েমেনের আনসারুল্লাহ সংগঠনকে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসের পূর্বের অবস্থায় অর্থাৎ ক্ষমতা থেকে দূরে সরিয়ে দেয়া। কিন্তু গত চার বছরে সৌদি আরবের সে লক্ষ্য তো পূরণ হয়নি উল্টো আনসারুল্লাহ বর্তমানে ইয়েমেনের প্রধান শক্তিতে পরিণত হয়েছে।#

পার্সটুডে/২৬

ট্যাগ

মন্তব্য