২০১৯-০৯-১০ ১৯:৫১ বাংলাদেশ সময়
  • হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ
    হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করলে ইহুদিবাদী ইসরাইল ধ্বংস হয়ে যাবে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে মার্কিন সামরিক বাহিনীর উপস্থিতির অবসান ঘটবে।

পবিত্র আশুরা ও হযরত ইমাম হোসেইন (আ)’র মর্মান্তিক শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে  টেলিভিশনের মাধ্যমে দেয়া এক ভাষণে হিজবুল্লাহ মহাসচিব এ কথা বলেন। তিনি সুস্পষ্ট ঘোষণা দেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে কোনো রকমের সামরিক আগ্রাসন হলে হিজবুল্লাহ নিরপেক্ষ থাকবে না।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের যুদ্ধ-পরিকল্পনা আমরা প্রত্যাখ্যান করছি কারণ এমন যুদ্ধে এ অঞ্চলের কয়েকটি দেশ এবং এসব দেশের জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সম্ভাব্য যুদ্ধ মূলত পুরো মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিরোধকারী শক্তি বিরুদ্ধে যুদ্ধ। হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, সম্ভাব্য এই যুদ্ধে ইহুদিবাদী ইসরাইলের চির অবসান ঘটবে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে মার্কিন বাহিনীর উপস্থিতিরও অবসান হবে।

হিজবুল্লাহ যোাদ্ধাদের ফাইল ফটো

হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, ২০০৬ সালের যুদ্ধের সময় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ১৭০১ নম্বর প্রস্তাব অনুসারে ইসরাইলের সঙ্গে যে যুদ্ধবিরতি হয়েছিল লেবানন ও হিজবুল্লাহ তার প্রতি শ্রদ্ধা জানায় কিন্তু ইসরাইল যদি লেবাননের উপরে হামলা চালায় তাহলে তারা উপযুক্ত জবাব পাবে।

হাসান নাসরুল্লাহ ও তার ভাষণের এক পর্যায়ে বলেন, নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের ব্যাপারে হিজবুল্লার প্রতিশ্রুতি রয়েছে এবং ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসানের জন্য হিজবুল্লাহ অঙ্গীকারাবদ্ধ।#

পার্সটুডে/এসআইবি/১০

ট্যাগ

মন্তব্য