• তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু
    তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু রাশিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা উসকে দেয়ার জন্য পরোক্ষভাবে আমেরিকার সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, শীতল যুদ্ধের সময়কার শত্রুতা ফিরে এলে তাতে কারোরই স্বার্থ রক্ষা হবে না।

তুরস্কের আনাতালিয়া প্রদেশে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় এ কথা বলেন তিনি। চাভুসওগ্লু বলেন, মস্কো এবং ওয়াশিংটনের মধ্যে নতুন উত্তেজনায় কারোরই স্বার্থ রক্ষা হবে বরং পুরানো সমস্যা আরো বাড়বে।

তিনি আরো বলেন, তুরস্ক আর শীতল যুদ্ধের দিনগুলোতে ফিরে যেতে চায় না। চারপাশের বিশ্বে অনেক সমস্যা জমে আছে বলেও জানান তিনি।

গত মাসে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগে মার্কিন সরকার রাশিয়ার ৩৫ কূটনীতিককে বহিষ্কার করার ঘোষণা দেয়ার পর মস্কো-ওয়াশিংটন সম্পর্কে নতুন উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। অবশ্য পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে আমেরিকার ৩৫ কূটনীতিককে সেদেশ থেকে বহিষ্কারের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বিশ্বব্যাপী ইতিবাচক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করেন। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৩৫ মার্কিন কূটনীতিককে 'অবাঞ্ছিত ব্যক্তি' হিসেবে ঘোষণা করে তাদেরকে বহিষ্কারের প্রস্তাব দিয়েছিল।

কিন্তু ক্রেমলিনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেছেন, রাশিয়াকে উসকানি দেয়ার লক্ষ্য নিয়ে এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তবে রাশিয়া এ টোপ গিলবে না। পুতিন আরো বলেন, প্রতিশোধ নেয়ার অধিকার রাশিয়ার আছে। কিন্তু কূটনীতিকে ‘রান্নাঘরের’ পর্যায়ে নামিয়ে নেয়ার মতো হীন পদক্ষেপ রাশিয়া নেবে না।

এদিকে, পুতিনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন মার্কিন নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি এক টুইট বার্তায় পুতিনের এ সিদ্ধান্তকে  ‘অসাধারণ পদক্ষেপ’ বলে অভিহিত করেছেন। এছাড়া পুতিনকে  ‘চৌকস ব্যক্তি’ হিসেবেও উল্লেখ করেন তিনি।#

পার্সটুডে/মূসা রেজা/৩১

 

ট্যাগ

২০১৬-১২-৩১ ১১:৩৪ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য