• উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন
    উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন

কোরীয় উপদ্বীপে যৌথ সামরিক মহড়া চালানোর বিষয়ে আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়াকে আবার সতর্ক করে দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম কেসিএনএ বলেছে, ওয়াশিংটন ও সিউল আবার এ অঞ্চলে যৌথ সামরিক মহড়া চালালে পরিস্থিতি আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠবে এবং সেজন্য দক্ষিণ কোরিয়া ও আমেরিকাকে দায়ী থাকতে হবে।

ওয়াশিংটন ও সিউল গত সপ্তাহে ঘোষণা করেছে, দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া শীতকালীন অলিম্পিক শেষে  দুই দেশ আবার কোরীয় উপদ্বীপে সামরিক মহড়া চালাবে।

আগামীকাল (শুক্রবার) দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাং শহরে শুরু হচ্ছে শীতকালীন অলিম্পিক যা চলবে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

উত্তর কোরিয়ার একটি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র (ফাইল ছবি)

উত্তর কোরিয়া বলছে, অলিম্পিক শেষ হলে ওয়াশিংটন ও সিউল যে সামরিক মহড়া চালাতে যাচ্ছে তার উদ্দেশ্য কোরীয় উপদ্বীপের শান্তি ও নিরাপত্তা বিঘ্নিত করা। এ ছাড়া, দুই কোরিয়ার মধ্যে যাতে সুসম্পর্ক প্রতিষ্ঠিত হতে না পারে সেজন্য এই মহড়াকে আমেরিকার পক্ষ থেকে ষড়যন্ত্র বলেও অভিহিত করেছে পিয়ংইয়ং। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, তা না হলে তিনি বিশ্বের মানচিত্র থেকে পিয়ংইয়ংয়ের নাম মুছে ফেলবেন।

অন্যদিকে পিয়ংইয়ং বলেছে, যতদিন দেশটির বিরুদ্ধে মার্কিন হুমকি অব্যাহত থাকবে ততদিন পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে যাবে উত্তর কোরিয়া।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/৮

২০১৮-০২-০৮ ০৭:১৪ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য