• মার্কিন জঙ্গিবিমান (ফাইল ফটো)
    মার্কিন জঙ্গিবিমান (ফাইল ফটো)

রাশিয়া বলেছে, সিরিয়ায় উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের বিরুদ্ধে আমেরিকা লড়াই করছে না বরং মার্কিন সেনারা সিরিয়ার সম্পদ ধ্বংস করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। সিরিয়ার সরকারপন্থি যোদ্ধাদের ওপর মার্কিন বাহিনীর নতুন হামলার মাধ্যমে একথা প্রমাণ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেছে মস্কো।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেছে। এতে বলা হয়েছে, মার্কিন হামলা আবারো একথাই প্রমাণ করল যে, আমেরিকা অবৈধভাবে সিরিয়ায় সেনা মোতায়েন করে রেখেছে যা দায়েশ-বিরোধী লড়াইয়ে কোনো ভূমিকা রাখছে না বরং সিরিয়ার সম্পদ ধ্বংস করছে।

বুধবার মার্কিন সেনারা বলেছে, সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেইর আজ -যোর প্রদেশে তারা প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের অনুগত অন্তত ১০০ যোদ্ধাকে হত্যা করেছে। আমেরিকা দাবি করেছে, এসব যোদ্ধা মার্কিন সমর্থিত কথিত সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস বা এসডিএফ’র ওপর হামলার পরিকল্পনা করছিল। কিন্তু রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, সিরিয়ার সরকার সমর্থিত এসব যোদ্ধা দেইর আজ-যোরের আল-ইসবা তেল শোধানাগারের কাছে দায়েশ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছিল। ওই সময় মার্কিন সেনারা তাদের ওপর হামলা চালায়।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানা মার্কিন বাহিনীর এ হামলাকে সন্ত্রাসবাদের সমর্থনে ‘আগ্রাসন’ বলে মন্তব্য করেছে।#        

পার্সটুডে/সিরাজুল ইসলাম/৮   

২০১৮-০২-০৯ ০১:৩২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য