• ইয়েমেনে আগ্রাসনের জন্য সৌদি যুবরাজ ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে দায়ী করে বানানো কার্টূন
    ইয়েমেনে আগ্রাসনের জন্য সৌদি যুবরাজ ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে দায়ী করে বানানো কার্টূন

সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের ব্রিটেন সফরের প্রতিবাদে লন্ডনে বিক্ষোভ হয়েছে। ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনে ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় রিয়াদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিক্ষোভকারীরা।

ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের বিষয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে যখন রিয়াদকে অব্যাহতভাবে সমর্থন করছেন এবং যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানকে লালগালিচা সংবর্ধনা দিয়েছেন তখন এই বিক্ষোভ হলো।

যুবরাজ মুহাম্মাদ তিন দিনের সফরে মঙ্গলবার লন্ডনে পৌঁছান এবং ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন তাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান। এ সফরে যুবরাজ ব্রিটেনের সঙ্গে অর্থনীতি, শিক্ষা, সংস্কৃতি, প্রতিরক্ষা এবং নিরাপত্তা বিষয়ে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে কথা রয়েছে।

থেরাসা মে'র সঙ্গে যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের হ্যান্ডশেক

যুবরাজের সফরের মধ্যে ব্রিটিশ সংসদেও তুমুল বিতর্ক হয়েছে। বিরোধী লেবার দলের নেতা জেরেমি করবিন গতকাল পার্লামেন্টে বলেছেন, সৌদি আরব ইয়েমেনে যেভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে তাতে প্রধানমন্ত্রীর উচিত যুবরাজের কাছে প্রতিবাদ করা। জবাবে থেরেসা মে বলেছেন, সৌদি আরবের সঙ্গে ব্রিটেনের সম্পর্ক হচ্ছে ঐতিহাসিক এবং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই সম্পর্কের কারণে ব্রিটেনের শত শত নাগরিকের জীবন রক্ষা পেয়েছে। পার্লামেন্টে থেরেসা মে'র এই বক্তব্যে বিরোধী সংসদ সদস্যরা বাধা দেন এবং 'শেইম' বলে চিৎকার করতে থাকেন।#

পার্সটুডে/সিরাজুল ইসলাম/৮

 

ট্যাগ

২০১৮-০৩-০৮ ১৯:১৩ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য