• ভ্লাদিমির পুতিন ও বারাক ওবামা (ফাইল ছবি)
    ভ্লাদিমির পুতিন ও বারাক ওবামা (ফাইল ছবি)

রাশিয়ার পুনর্নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে শুভেচ্ছা জানানোর সিদ্ধান্ত সমর্থন করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও অতীতে পুতিনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পুতিন বিপুল ভোটে বিজয়ী হওয়ার পর তিনি ফোন করে রুশ প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। রোববার রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পুতিন ৭০ ভাগেরও বেশি ভোট পেয়ে চতুর্থবারের মতো দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। 

তাকে শুভেচ্ছা জানানোর ঘোষণা দেয়ার পর ট্রাম্পের তীব্র সমালোচনা করেন অনেক ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান সিনেটর এবং মার্কিন গণমাধ্যম। তারা অভিযোগ করেন, পুতিন রাশিয়ায় স্বৈরশাসন কায়েম করেছেন এবং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট এরকম একজন স্বৈরশাসককে শুভেচ্ছা জানাতে পারেন না।  

এসব সিনেটর প্রকারান্তরে একথা বোঝানোর চেষ্টা করেন যে, রাশিয়ার হস্তক্ষেপে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার কারণে পুতিনকে শুভেচ্ছা জানানোর ক্ষেত্রে ট্রাম্পের দায়বদ্ধতা রয়েছে।

ভ্লাদিমির পুতিন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প (ফাইল ছবি)

কিন্তু তাদের এ কটাক্ষপূর্ণ সমালোচনার জবাব দিতে গিয়ে ট্রাম্প বুধবার এক টুইটার বার্তায় বলেছেন, “আমি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনকে তার নির্বাচনি বিজয়ে শুভেচ্ছা জানাতে ফোন করেছি। অতীতে ওবামাও পুতিনকে একই কারণে ফোন করেছিলেন।”

ট্রাম্প আরো বলেন, “ভুয়া খবর প্রচারকারী গণমাধ্যম চায় আমি যেন সমালোচনা করে প্রেসিডেন্ট পুতিনের ‘ছাল তুলে’ ফেলি। কিন্তু তারা ভুল ভেবেছে। রাশিয়ার সঙ্গে একসাথে চলায় তো কোনো দোষ নেই, এটি একটি ভালো কাজ।”

২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারাভিযানের শুরু থেকেই ডোনাল্ড ট্রাম্প তার সমালোচনা করে খবর প্রচার করলেই গণমাধ্যমকে ‘ভুয়া খবর’ প্রচারকারী মাধ্যম বলে কটাক্ষ করে এসেছেন।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/২২

 

২০১৮-০৩-২২ ০৬:৪৫ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য