মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরের প্রতিবাদের অংশ হিসেবে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের পাশে ট্রাম্পের মতো দেখতে ছয় মিটার লম্বা একটি বেলুন উড়ানো হয়েছে। ট্রাম্পের মুখের আদলে ক্রন্দনরত শিশুর আকৃতিতে এই বেলুনটি তৈরি করা হয়েছে। চার দিনের সফরে ব্রিটেন গেছেন ট্রাম্প।

সম্প্রতি আমেরিকায় অবৈধ অভিবাসীদের আটক করার পর তাদের পরিবার থেকে শিশুদেরকে বিচ্ছিন্ন করে রাখেন ট্রাম্প। তারই প্রতিবাদে ট্রাম্পের মুখের আদলে ক্রন্দনরত শিশুর আকৃতিতে বেলুনটি বানানো হয়েছে।

লন্ডনের পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত মেয়র সাদিক খানের অনুমতি নিয়ে বেলুনটি উড়ানো হয়েছে। বেলুন উড়ানোর অনুমতি দেওয়ায় সাদিক খানের উপরও ক্ষেপেছেন ট্রাম্প। এর জবাবে সাদিক খান বলেছেন, সবারই মত প্রকাশের স্বাধীনতা রয়েছে। ট্রাম্প বলেছেন, তিনি অনুভব করছেন লন্ডন তাকে স্বাগত জানাচ্ছেন না।  

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ব্রিটেন সফরের প্রতিবাদে লন্ডনসহ দেশটির বিভিন্ন শহরে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন। এরইমধ্যে শহরের কেন্দ্রস্থলে হাজার হাজার মানুষ সমবেত হয়েছে। ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সকাল থেকেই প্রস্তুতি ছিল লক্ষ্যণীয়। বিক্ষোভকারীরা ব্যানার ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিভিন্ন স্থানে জড়ো হয়েছেন।

ট্রাম্পের মুসলিম ও অভিবাসনবিরোধী নীতিসহ আরো কিছু সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এই বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়। ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে বর্ণবাদী আচরণেরও। এই প্রতিবাদ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে লন্ডনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এজন্যে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশকে সারা দেশ থেকে পুলিশ পাঠিয়ে সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, শহরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চার হাজারেরও বেশি পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এজন্যে খরচ হবে প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ ডলার।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান প্রতিবাদকারীদের শান্তিপূর্ণ উপায়ে বিক্ষোভ করার আহবান জানিয়েছেন। লন্ডনের বাইরে ডেভন, এডিনবরা, বেলফাস্ট, ম্যানচেস্টার, লিডস, বেলফাস্টসহ আরো কয়েকটি শহরেও ট্রাম্পবিরোধী প্রতিবাদ বিক্ষোভে হাজার হাজার মানুষ অংশ নিচ্ছে।#

পার্সটুডে/সোহেল আহম্মেদ/১৩

২০১৮-০৭-১৩ ১৯:২৮ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য