• হুমকি দেবেন না, নয়তো ফল ভোগ করতে হবে: ট্রাম্পের বাগাড়ম্বর

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবার ইরানের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তেহরানকে এমন শিক্ষা দেয়া হবে, ইতিহাসে খুব কম সংখ্যক লোকই এর পরিণতি ভোগ করেছে। ইরানের অভ্যন্তরে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মার্কিন প্রশাসন যখন নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে তখন ট্রাম্পের পক্ষ থেকে হুমকি এলো।

গতকাল ইরানের প্রেসিডেন্ট রুহানি তার দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল এমন কিছু পদক্ষেপ নেয়ার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হুঁশিয়ারি দেন। রুহানি বলেছিলেন, মি ট্রাম্প, সিংহের লেজ নিয়ে খেলবেন না, এরজন্যে কিন্তু আপনাকে অনুতপ্ত হতে হবে। রুহানির হুমকির জবাবে নিজের টুইটার পেজে দেয়া এক বার্তায় ট্রাম্প লিখেন: "আর কখনোই আমাদের হুমকি দেবেন না। অন্যথায় এমন পরিণতি ভোগ করতে হবে, ইতিহাসে খুব কম সংখ্যক লোকই তা ভোগ করেছে। আমরা আর এমন কোন দেশ নেই যারা আপনাদের সহিংসতা ও মৃত্যুর শব্দে চুপ থাকবে। সতর্ক হোন।"

তেহরানে বিদেশে নিযুক্ত ইরানি রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠকে প্রেসিডেন্ট রুহানি গতকাল আমেরিকার প্রতি  হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে আরো বলেছিলেন, আমেরিকার জানা উচিত ইরানের সঙ্গে শান্তি প্রতিষ্ঠা করলে সব শান্তির সন্ধান পাওয়া যাবে এবং তেহরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যাওয়ার অর্থ হবে নিজেকে সব ধরনের যুদ্ধে জড়িয়ে ফেলা।

এছাড়া মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও গতকাল ইরান বিরোধী এক বক্তৃতায় বলেন, ওয়াশিংটন চায় তেহরানের ওপর অর্থনৈতিক চাপ বাড়ানোর আমেরিকার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে সকল দেশে ইরান থেকে তাদের তেল আমদানি কমিয়ে দিক। এমনকি সম্ভব হলে একেবারে বন্ধ করে দিক।#

পার্সটুডে/বাবুল আখতার/২৩

 

 

২০১৮-০৭-২৩ ১৭:০৮ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য