• ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ
    ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার সরকার বিরোধী নেতাদের বিষপ্রয়োগ করেছেন বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে ক্রেমলিন। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, এ ধরনের অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই এবং এর স্বপক্ষে কোনো দলিল-প্রমাণও নেই।

ব্রিটেনে বসবাসরত রুশ দ্বৈত গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার কন্যা ইউলিয়ার ওপর রাসায়নিক গ্যাসপ্রয়োগের জন্য ব্রিটিশ সরকার প্রেসিডেন্ট পুতিনকে দায়ী করার পর পেসকভ এ বক্তব্য দিলেন। ক্রেমলিনের মুখপাত্র বলেন, এ ধরনের ঘটনায় রাশিয়ার বিন্দুমাত্র সংশ্লিষ্টতা নেই।

পেসকভ আরো বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিবিএস নিউজ চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের অভিযোগ করেননি। তিনি আরো বলেন, এ ধরনের অভিযোগ প্রমাণ করার মতো কোনো দলিলের অস্তিত্বই নেই।

স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়া (ফাইল ছবি)

চলতি বছরের ৪ মার্চ ব্রিটেনের সলসবারি শহরের একটি বিপণিকেন্দ্রের বাইরে বেঞ্চিতে সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়া স্ক্রিপালকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর থেকেই বলা হচ্ছে, ওই দুই ব্যক্তিকে রাশিয়া হত্যা করতে চেয়েছিল। পরবর্তীতে চিকিৎসার মাধ্যমে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠেন স্ক্রিপালও তার মেয়ে।

সের্গেই স্ক্রিপাল একসময় রাশিয়ার সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার কর্নেল ছিলেন। ২০০৬ সালে তার বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ ওঠে। রাশিয়ায় তাঁর ১৩ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল। এরপর ২০১০ সালে সমঝোতার ভিত্তিতে তিনি মুক্তি পান। মুক্তির পর ব্রিটেনে আশ্রয় নেন স্ক্রিপাল।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১৬

ট্যাগ

২০১৮-১০-১৬ ০৭:১৭ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য