• দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী পানমুনজম গ্রাম
    দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী পানমুনজম গ্রাম

দক্ষিণ কোরিয়ার ঐক্য বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং উত্তর কোরিয়ার ঐক্য বিষয়ক কমিটি দু’দেশের মধ্যে সামরিক উত্তেজনা প্রশমন করে শীর্ষ পর্যায়ের সেনা কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠকের আয়োজন করতে ঐক্যমত্যে পৌঁছেছে।

সোমবার দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী পানমুনজম গ্রামে দ্বিপক্ষীয় এক বৈঠকের পর দক্ষিণ কোরিয়ার ঐক্য বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে।  এটি বলেছে, আবার কখনো যাতে দুই কোরিয়ার মধ্যে সামরিক উত্তেজনা সৃষ্টি না হয় বা সামরিক সংঘাত না বাধে সে লক্ষ্যে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া একটি যৌথ সামরিক কমিটি গঠনে সম্মত হয়েছে।

গত এপ্রিলে পানমুনজমে পরস্পরের সঙ্গে সাক্ষাতে মিলিত হন দুই কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা

দক্ষিণ কোরিয়ার বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, দুই কোরিয়ার মধ্যে রেল যোগাযোগ এবং পায়ে হাঁটার সংযোগ পথ স্থাপন করতেও পিয়ংইয়ং ও সিউলের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।

এ ছাড়াও সোমবারের বৈঠকে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া আরো যেসব বিষয়ে ঐক্যমত্যে পৌঁছেছে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে, দুই কোরিয়ায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া পরিবারগুলোর মধ্যে কথা বলার জন্য ভিডিও কনফারেন্সের ব্যবস্থা করা, ২০২০ সালে অনুষ্ঠেয় টোকিও অলিম্পিকে দুই কোরিয়ার যৌথ টিম পাঠানো, ২০৩২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক যৌথভাবে আয়োজন করা, দু’দেশের স্থল ও নৌ সীমান্তে নিরাপদ অঞ্চল ঘোষণা করা এবং সামরিক হুমকি প্রশমন করা।

দুই চির শত্রুভাবাপন্ন দেশ উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে সাম্প্রতিক সময়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এরইমধ্যে দুই কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা পানমুনজমে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।#

পার্সটুডে/মুজাহিদুল ইসলাম/১৬

ট্যাগ

২০১৮-১০-১৬ ০৯:৩৫ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য