আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অর্ধশতাধিক ব্যক্তি নিহত ও ৮০ জনের বেশি আহত হয়েছেন। সাম্প্রতিককালে এটিই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী হামলা।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ছয়টা কাবুলের বিমানবন্দর সড়কের একটি মিলনায়তনে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্মদিন পালনের জন্য উপস্থিত সহস্রাধিক ধর্মপ্রাণ মানুষকে লক্ষ্য করে বোমা হামলাটি চালানো হয়।

আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানেশ বলেন, অনুষ্ঠান চলাকালে একজন আত্মঘাতী হামলাকারী তার সঙ্গে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটালে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে। অনুষ্ঠানে শতাধিক আলেমও উপস্থিত ছিলেন বলে তিনি জানান।

হামলার ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পোস্ট করা এক ভিডিওতে দেখা যায়, অন্তত ৩০টি অ্যাম্বুলেন্স হতাহতদের সরিয়ে নেয়ার কাজ করছে।

এখনও কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে, তাকফিরি সন্ত্রাসীগোষ্ঠী দায়েশ এ ধরনের হামলা চালিয়ে থাকে। 

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি এ হামলাকে ‘অমার্জনীয় অপরাধ’ হিসেবে আখ্যায়িত করার পাশাপাশি বুধবার একদিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করেছেন।#

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/২১

ট্যাগ

২০১৮-১১-২১ ০২:২৯ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য