২০১৮-১২-১১ ১৩:৫৮ বাংলাদেশ সময়
  • টিইউ-১৬০ কৌশলগত বোমারু বিমান
    টিইউ-১৬০ কৌশলগত বোমারু বিমান

ভেনিজুয়েলায় পরমাণু বোমারু দুটি টিইউ-১৬০ কৌশলগত বিমান টিইউ-১৬০ কৌশলগত বিমান মোতায়েন করেছে রাশিয়া। এ বিমান ব্ল্যাকজ্যাক নামে পরিচিত। গতকাল বিমান দুটি ৬,২০০ মাইল পথ পাড়ি দিয়ে ভেনিজুয়েলার রাজধানী কারাকাসে পৌঁছেছে।

রাশিয়ার সামরিক শক্তি প্রদর্শন এবং ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর প্রতি সমর্থন প্রকাশের জন্য রাশিয়া এ বিমান পাঠিয়েছে। গতকাল ভেনিজুয়েলার সাইমন বলিভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান দুটি অবতরণ করে। এর সঙ্গে রয়েছে একটি এএন-১২৪ পরিবহন বিমান এবং আইএল-৬২ যাত্রীবাহী বিমান।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভেনিজুয়েলায় যাওয়ার পথে রুশ পরমাণু বোমারু বিমান দুটিকে নরওয়ের এফ-১৮ বিমান অনুসরণ করে।

টিইউ-১৬০ কৌশলগত বিমান 

ভেনজিুয়েলার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ভ্লাদিমির পাদ্রিনো লোপেজ বলেন, বিমান দুটি সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে এসেছে; এটা কোনো যুদ্ধের উসকানি নয়। তিনি বলেন, “আমরা যুদ্ধ আহ্বানকারী নই বরং শান্তি প্রতিষ্ঠাকারী।”

ভেনিজুয়েলায় নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত ভ্লাদিমির জায়েমিস্কি ভেনিজুয়েলার ভিটিভি-কে বলেন, পরমাণু বোমাবাহী বিমান মোতায়েনের মধ্যদিয়ে একথা পরিষ্কার হয়েছে যে, মস্কো ও কারাকাসের মধ্যে অত্যন্ত কার্যকর সামরিক অংশীদারিত্ব রয়েছে। এ সম্পর্ক ২০০৫ সালে হুগো চ্যাভেজের সময় থেকে উন্নতি করতে শুরু করে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, কৌশলগত পরমাণু বোমারু বিমান পাঠিয়ে রাশিয়া আমেরিকাকে এ ইঙ্গিত দিল যে, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভেনিজুয়েলা সঙ্গীবিহীন নয়, মস্কো তার পাশেই আছে।#  

পার্সটুডে/এসআইবি/১১

ট্যাগ

মন্তব্য