২০১৯-০৪-২৪ ১১:১৯ বাংলাদেশ সময়
  • জেনারেল সিসি
    জেনারেল সিসি

মিশরের গণভোটে শতকরা প্রায় ৯০ ভাগ ভোটার প্রেসিডেন্ট জেনারেল আবেদল ফাত্তাহ আস-সিসিকে ক্ষমতায় রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন। এর ফলে দেশটির সংবিধান পরিবর্তন করা হবে এবং জেনারেল সিসির ২০৩০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার পথে আর কোনো বাধা থাকল না।  

গতকাল (মঙ্গলবার) মিশরের জাতীয় নির্বাচন কমিশনের প্রধান লাশিন ইব্রাহিম সংবাদ সম্মেলনে জানান, গণভোটের মাধ্যমে ২০১৪ সালের সংবিধান সংশোধনকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তিনি দাবি করেন, গণভোটে শতকরা ৮৮.৮৩ ভাগ ভোটার পরিবর্তনের জন্য অর্থাৎ সিসিকে ক্ষমতায় থাকার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। গণভোটে ভোটার উপস্থিতি ছিল শতকরা ৪৪.৩৩ ভাগ।

এমন ধরনের নানারকম সামগ্রি ঘুষ দেয়া হয়েছে ভোটারদের

ইব্রাহিম জানান, “সংবিধান অনুসারে এখন থেকেই এই পরিবর্তন কার্যকর হবে।” গত শনিবার থেকে মিশরে গণভোট শুরু হয়ে সোমবার পর্যন্ত তা চলে। দেশটির ছয় কোটি দশ লাখ ভোটারের মধ্যে দুই কোটি ৭০ ভোটার ভোট দিয়েছেন।

২০১৪ সালে মিশরের সংবিধানে যে পরিবর্তন আনা হয় তাতে দুটি ধারা ছিল। এর একটি হলো জেনারেল সিসি বর্তমান মেয়াদের সঙ্গে আরো দুই বছর বেশি সক্ষমতায় থাকতে পারবেন। সে হিসাবে তিনি ২০২৪ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে পাবেন। অন্যটি হলো ২০২৪ সালে তিনি আবার প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন করতে পারবেন এবং তার মেয়াদ হবে ছয় বছর।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৪

ট্যাগ

মন্তব্য