সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা! ৭ মার্চ মঙ্গলবারের কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম।

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় চলছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন: দৈনিক ইত্তেফাক
  • ৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধকারীরা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে: কাদের-দৈনিক ইত্তেফাক
  • গাজীপুরে র‌্যাবের হাতে জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার-কালের কণ্ঠ
  • আত্মসাৎকৃত বস্তাভর্তি টাকার কিছু মিলল ব্যাগে-প্রথম আলো
  • খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার বিচারে বন্দী: ফখরুল- বিরোধী দলকে অধিকারবঞ্চিত করছে সরকার : আমীর খসরু-নয়াদিগন্ত
  • রাজধানীতে তীব্র যানজট-দৈনিক মানব জমিন
  • সরকারি ইউরিয়া সারে বস্তায় ৩-৫ কেজি কম – দৈনিক ইত্তেফাক

ভারতের শিরোনাম:  

  • মূর্তির উপর হামলায় উদ্বিগ্ন মোদী, কড়া ব্যবস্থার নির্দেশ: আনন্দ বাজার
  • চিদম্বরমকে জেরার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিবিআই-দৈনিক আনন্দবাজার
  • ডোকলামে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে চিন! প্রতিরক্ষামন্ত্রীর রিপোর্টে আভাস- দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন 

পাঠক/শ্রোতা! এবারে চলুন, বাছাইকৃত কয়েকটি খবরের বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। প্রথমেই বাংলাদেশ-

বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় চলছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন: দৈনিক ইত্তেফাক

বিস্তারিত খবরে লেখা হয়েছে, বিপুল উত্সাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে জাতি আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন করছে। বাঙালি জাতির স্বাধীনতার জন্য সুদীর্ঘ সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এটি একটি অনন্য দিন। সুদীর্ঘকালের আপসহীন আন্দোলনের একপর্যায়ে ১৯৭১ সালের এই দিনে তত্কালীন রেসকোর্স ময়দানের (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ডাক দেন।

ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

এই উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে অবস্থিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে এই মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধকারীরা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে: কাদের-দৈনিক ইত্তেফাক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ যারা নিষিদ্ধ করেছিল তারা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে। তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চ ও মুক্তিযুদ্ধ একই সূত্রে গাঁথা। কারণ বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণের মাধ্যমে পুরো জাতি অনুপ্রাণিত হয়ে মুক্তির সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। কাদের আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণই ছিল কার্যত স্বাধীনতার ঘোষণা। ২৫ মার্চ বঙ্গবন্ধু পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর গণহত্যা শুরুর পর আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

ওবায়দুল কাদের আজ সকালে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে রক্ষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এ কথা বলেন। তিনি কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণ আগে শুধুমাত্র আমাদের সম্পদ ছিল। এ ভাষণ জাতিসংঘের ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে নিবন্ধিত হওয়ার পর তা সারাবিশ্বের সম্পদে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, এ ভাষণকে দেশের তৃণমূলের তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। তাহলেই দেশের তৃণমূলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পৌঁছে যাবে।

গাজীপুরে র‌্যাবের হাতে জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার-কালের কণ্ঠ

গাজীপুরে জেএমবির এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তার হওয়া জেএমবি সদস্যের নাম রাশেদ ওরফে মো. রাফিউল ইসলাম ওরফে লিখন (২০)। মঙ্গলবার রাতে নগরীর বোর্ড বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। রাফিউল ইসলাম বগুড়ার শাহজাহানপুর উপজেলার সোনাইদিঘী গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে। র‌্যাব-২ এর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক এএসপি মো. ফিরোজ কাউছার জানান, গত ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকার তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকার সোনালী ব্যাংক মোড় থেকে জেএমবির দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এসময় তাদের কাছ থেকে দশীয় অস্ত্র, জঙ্গিবাদী বই ও বৈদেশিক মুদ্রা জব্দ করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজার থেকে লিখনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাবকে লিখন জানিয়েছে, ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে ইসমাইল নামে এক ব্যক্তির সাহচর্যে জেএমবির সদস্য হন তিনি।

আত্মসাৎকৃত বস্তাভর্তি টাকার কিছু মিলল ব্যাগে-প্রথম আলো

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে ভূমি অধিগ্রহণের নামে আত্মসাৎকৃত টাকার মধ্যে ৯২ লাখ টাকা ওই জেলার হিসাবরক্ষণ অফিসের অডিটরের বাসা থেকে উদ্ধার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ দল এই টাকা উদ্ধার করে। দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য জানান।

এ বস্তাতেই ছিল ৯২ লাখ টাকা

জমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের প্রায় ১৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়ে যান সরকারের ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা সেতাফুল ইসলাম। এর মধ্যে পরপর দুই দিনে তিনি সোনালী ব্যাংকের কিশোরগঞ্জ শাখা থেকে প্রায় পাঁচ কোটি টাকা তুলে বস্তায় ভরে নিয়ে যান।

উদ্ধার করা ৯২ লাখ টাকা।  

প্রণব কুমার জানান, গতকাল রাত ১২টার দিকে দুদক দলের সদস্যরা হারুয়া এলাকার কাতিয়ার চর খুরশীদের মাঠসংলগ্ন কিশোরগঞ্জ জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের অডিটর সৈয়দুজ্জামানের বাসায় অভিযান চালান। একপর্যায়ে লুকিয়ে রাখা বাজারের একটি ব্যাগ থেকে নগদ ৯২ লাখ টাকা পাওয়া যায়। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও সৈয়দুজ্জামানের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। টাকা জব্দ করে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় জিম্মায় রাখা হয়েছে। পরে তা সরকারি ট্রেজারিতে জমা করা হবে।

খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার বিচারে বন্দী : ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান শাসনকালে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে নারীর প্রতি সহিংসতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমান দু:সময়ে নারী ও শিশুরা অতি মাত্রায় নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার বিচারে বন্দী। নারী হলেও তার ওপর চালানো হচ্ছে বন্য বিচারের জুলুম। এই নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির অবসান ঘটাতে হবে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর 

আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আমি বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল নারীর সুখী সমৃদ্ধশালী ও সম্মানজনক জীবন কামনা করে তাদেরকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান তিনি। আজ (বুধবার) গণমাধ্যমে দেয়া এক বাণীতে বিএনপি মহাসচিব এসব বলেন।

রাজধানীতে তীব্র যানজট: দৈনিক মানবজমিন

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগের সমাবেশকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। আজ বুধবার সকাল থেকেই সবগুলো সড়কে যানজট দেখা যায়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা আরো বাড়তে থাকে। সমাবেশে যোগ দিতে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে নেতাকর্মীরা আসছেন। যার কারণে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া গণপরিবহনের সংখ্যাও তুলনামূলক কম। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছেন রাজধানীবাসী।

ঢাকার যানজটের চিত্র( ফাইল ফটো)

আসাদ গেট থেকে শাহবাগ আসার জন্য গাড়িতে ওঠেছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আরাফাতুল মামুর। তিনি জানান, আসাদ গেট থেকে গাড়িতে ওঠার পর আধাঘন্টায় ফার্মগেটের কাছাকাছি আসতে পেরেছি। বাকি পথ মনে হচ্ছে হেঁটেই যেতে হবে। একই অবস্থা মিরপুর রোড়েও। সেখানেও গাড়িগুলোতে সারি বেঁধে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

সরকারি ইউরিয়া সারে বস্তায় ৩-৫ কেজি কম দৈনিক ইত্তেফাক

চট্টগ্রামের আনোয়ারাস্থ বিসিআইসির গুদাম থেকে দুইমাসে বরাদ্দের ২৩শ' ৫০ মেট্রিক টন ইউরিয়া সার উত্তোলন করে প্রায় ৩০ লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ২০ জন সারের ডিলার।

সরকারিভাবে সৌদিআরব থেকে আমদানি চুক্তিতে আনা এসব ইউরিয়া সার উত্তোলন করে গত জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে দুই দফায় ব্যাপক ওজন কারচুপির শিকার হয়েছেন ডিলাররা। ডিলারদের দাবি, ওজনে কারচুপির মাধ্যমে দুইমাসে বরাদ্দের ২৩শ' ৫০ মেট্রিক টন থেকে অন্তত দুইশত মেট্রিক টন সার কম দেয়া হয়েছে।

মূর্তির উপর হামলায় উদ্বিগ্ন মোদী, কড়া ব্যবস্থার নির্দেশ

ত্রিপুরায় লেনিন। কলকাতায় শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। এবং তামিলনাড়ুর ভেলোরে ইভিআর রামস্বামী পেরিয়ার। পর পর তিনটি মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনা। আর একের পর এক এমন ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহের সঙ্গে কথা বলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। রাজনাথ সিংহ চাইছেন, দেরি না করে রাজ্যগুলো যাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

ত্রিপুরায় ভোটে বিজেপি জিততে না জিততেই বুলডোজারের ধাক্কায় চুরমার হয়েছিল লেনিন-মূর্তি। এর পরেই ফেসুবুক পোস্টে তামিলনাড়ুর বিজেপি নেতা এইচ রাজা লেখেন, রামস্বামী পেরিয়ারের মূর্তিও লক্ষ্য হতে পারে। যদিও মঙ্গলবার রাতে পেরিয়ারের মূর্তির ওপর হামলার ঘটনায় যোগাযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। বলেছেন, ‘‘দুই ঘটনার সঙ্গে যদি দলের কেউ যুক্ত থাকে, তবে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

চিদম্বরমকে জেরার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিবিআই

ছেলে কার্তি চিদম্বরম কোনও প্রশ্নেরই উত্তর দিচ্ছেন না। মোবাইলের পাসওয়ার্ড দিতেও রাজি হচ্ছেন না। তাতে না দমে, তাঁর বাবা, প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রস্তুতি নিচ্ছে সিবিআই।

দিল্লির বিশেষ আদালত কার্তিকে আজ আরও তিন দিনের সিবিআই হেফাজতে পাঠিয়েছে। পি চিদম্বরম ও তাঁর স্ত্রী নলিনী এ দিন আদালতে এসেছিলেন। তামিলনাড়ু থেকে চিদম্বরমের সমর্থকেরাও আসেন। কার্তিকে ন’দিন হেফাজতে চেয়ে সিবিআই বলে, তিনি প্রমাণ লোপাট করেছেন। সাক্ষীদের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছেন। সিবিআই থেকে ছাড়া পেলে তাঁকে যেন ইডি না গ্রেফতার করে, সেই আর্জি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন কার্তি। কিন্তু প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রর বেঞ্চ জানিয়ে দিয়েছে, গ্রেফতারের আগেই এ ভাবে জামিন দেওয়া সম্ভব নয়। অবশ্য ইডি-র বক্তব্য জানতে চেয়েছে কোর্ট।

দিল্লী আদালত চত্বরে চিদম্বরম

পিটার ও ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের আইএনএক্স মিডিয়াকে ঘুষের বিনিময়ে বিদেশি লগ্নির ছাড়পত্র পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে কার্তির বিরুদ্ধে। সর্বোচ্চ আদালতে কার্তির পাল্টা অভিযোগ, ইডি তাঁর বাবার ভাবমূর্তিতে কালি ছেটাতে চাইছে। সিবিআই সূত্রের যুক্তি, ইডি-র পাঠানো ফাইলে তাঁরা দেখেছেন, চিদম্বরম অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন অন্তত ৮টি ক্ষেত্রে বেআইনি ভাবে বিদেশি লগ্নির ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল। ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রোমোশন বোর্ডের সচিবরাও বিষয়টি জানতেন না। কার্তির অ্যাকাউন্ট থেকে বাবার অ্যাকাউন্টে ১ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা গিয়েছিল বলেও প্রমাণ মিলেছে। তাই পি চিদম্বরমকে জেরা করা প্রয়োজন। কার্তির ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, ওই টাকা বাবা ছেলেকে বাড়ি তৈরির জন্য ঋণ দিয়েছিলেন। ছেলে তা শোধ করেন।

কোর্টে সিবিআইয়ের অভিযোগ, কার্তিকে তাঁর নাম, কোম্পানির নাম জিজ্ঞাসা করা হলেও জবাব মিলছে, ‘‘আমার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক চক্রান্ত হচ্ছে।’’ কার্তির আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভির যুক্তি, কার্তি সিবিআইয়ের পছন্দসই জবাব দিতে বাধ্য নন। পুলিশি হেফাজতে না রেখেও তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা যেত।

বিজেপিকে তালিবান ও আইএসের সঙ্গে তুলনা ফিরহাদেরদৈনিক আজকাল

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ত্রিপুরায় বুল্ডোজার দিয়ে লেনিনের মূর্তি ভাঙার তীব্র নিন্দা করলেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম। বিজপিকে তালিবান ও আইএস জঙ্গিদের সঙ্গে তুলনা করেছেন তিনি। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, পরিবর্তনের নামে  বিপদ ডেকে এনেছেন ত্রিপুরার মানুষ। বিজেপি তালিবানি দল। হিংসা ছড়াচ্ছে ত্রিপুরায়। লেনিনের মূর্তি ভাঙার সমালোচনা করেছেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও।মূর্তি ভেঙে কখনও আদর্শকে বিনাশ করা যায় না বলে বিজেপিকে কটাক্ষ করেন তিনি।

 

তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম

এদিকে আজ বিধানসভায় বেশ কিছু বিল পাস হয়েছেন। পথদুর্ঘটনা কমাতে নয়া উদ্যোগ নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। রাস্তায় চরতে পারবে না কোনও পশু–প্রাণী। বিধানসভায় বিল পাস করল রাজ্য সরকার। তাতে বলা হয়েছে পর্যটকদের কাছে পরিচ্ছন্ন শহর তুলে ধরতে হবে।  রাস্তায় কোনও পশু–প্রাণী ঘুরে বেরালে দৃষ্টি কটু লাগে। দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনাও থাকে। রাস্তায় পশু–প্রাণী ঘুরে বেরালে সেগুলিকে নিয়ে গিয়ে পশু খামারে রাখা হবে। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে সেই পশু খামার। কোনও গরু ছাগল রাস্তায় ঘুরে বেরালেই সেগুলিকে নিয়ে গিয়ে সেই পশু খামারে রাখা হবে।

ডেঙ্গু প্রতিরোধেও বিল পাস করা হয়েছে। বাড়িতে ডেঙ্গুর মশার লার্ভা মিললে ১০০০ টাকা থেকে ১০,০০০টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে।

ডোকলামে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে চিন! প্রতিরক্ষামন্ত্রীর রিপোর্টে আভাস- দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন  

ডোকলামে ফের আগ্রাসী ‘ড্রাগন’। বিতর্কিত এলাকায় ফের বাহিনী মোতায়েন করছে লালফৌজ। সোমবার লোকসভায় এমনটাই জানালেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তাঁর বক্তব্যে রীতিমতো উদ্বেগ ছড়িয়েছে দেশের প্রতিরিক্ষা মহলে।

২০১৭-তে ডোকলামে সংঘর্ষের দোরগোড়ায় দাঁড়ায় চিন ও ভারত। প্রথমে আস্ফালন করলেও শেষমেষ কূটনৈতিকভাবে চাপে পড়ে পিছিয়ে যায় বেজিং। বিতর্কিত ভারত-চিন-ভুটান সীমান্ত থেকে সরে যায় লালফৌজ। তবে ফের পরিস্থিতি সরগরম হচ্ছে বিতর্কিত অঞ্চলে। এদিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, ডোকলামে ফের বাহিনী মোতায়েন করেছে চিন। তবে সেখানে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনীও। যদিও সৈন্যসংখ্যা কমিয়েছে উভয় পক্ষই। উদ্বেগ বাড়িয়ে তাঁর সংযোজন, শীতের মরসুমের জন্য তৈরি হচ্ছে লালফৌজ। সেন্ট্রি পোস্ট, সুড়ঙ্গ, হেলিপ্যাড সহ কিছু পরিকাঠামো নির্মাণ করছে তারা। সম্প্রতি এক উপগ্রহ থেকে তোলা বেশ কিছু ছবি ও গোপন রিপোর্টে জানা যায়, ডোকলামে ট্যাঙ্ক, ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের পাশাপাশি সাতটি হেলিপ্যাড বানিয়েছে চিন। লোকসভায় এনিয়ে প্রশ্ন করা হলে বর্তমান পরিস্থিতির কথা জানান প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

চীনের লাল ফৌজ

এদিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান সীমান্তে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সমস্ত সম্ভব চেষ্টা করছে ভারত। সীমান্তে মোতায়েন দুই বাহিনীর বৈঠক, ফ্ল্যাগ মিটিং, ভারত-চিন সীমান্ত নিয়ে আলোচনা সংক্রান্ত বৈঠকে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ২০১৭-র জুন মাসে ডোকলামে বিতর্কিত ভূখণ্ডে সড়ক নির্মান শুরু করে চিনা সেনা। ওই কাজে বাধা দেয় ভারত। তারপর টানা ৭৩ দিন ডোকলামে ভারত, চিনের মধ্যে বাহিনী রাখা নিয়ে চলে টানাপোড়েন। সূত্রের খবর, সেবার সাময়িকভাবে পিছু হঠলেও, ফের ডোকলামে সেনা মোতায়েন করেছে চিন। জোর কদমে চলছে পরিকাঠামো নির্মাণের কাজ। পরিস্থিতির গুরুত্ব বোঝাতে সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত গত জানুয়ারিতে বলেন, পাকিস্তানের ওপর থেকে নজর ঘুরিয়ে চিনের দিকে তাকানোর সময় হয়েছে ভারতের।#

পার্সটুডে/বাবুল আখতার/৭

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

২০১৮-০৩-০৭ ১৮:২২ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য