আজকের অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় রয়েছি আমরা তিনজন। শুরুতেই যথারীতি একটি হাদিস। আমিরুল মু’মেনিন আলী (আ.) বলেছেন, যে ব্যক্তি সব ধরনের গোনাহ ও অপবিত্রতা থেকে দূরে থাকে সেই সর্বাপেক্ষা বুদ্ধিমান।

মূল্যবান হাদিস শুনলাম। এখান থেকে আমরা বুঝতে পারছি, গোনাহ ও অপত্রিতা থেকে দূরে না থাকলে আমরা নিজেদেরকে বুদ্ধিমান বলে দাবি করতে পারব না। যাই হোক, আসরের প্রথম ইমেইল এসেছে বাংলাদেশ থেকে। বগুড়া জেলার নিমাই দীঘি সড়ক ইন্টারন্যাশনাল রেডিও লিসেনার্স ক্লাব থেকে এটি পাঠিয়েছেন ক্লাবের সভাপতি মো আব্দুর রাজ্জাক। রেডিও তেহরানের শ্রোতা ভাই মো আবদুর রাজ্জাক লিখেছেন, তিনি এবং ক্লাবের সব সদস্য নিয়মিত রেডিও তেহরান শোনেন। এ ছাড়া, রেডিও তেহরানের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করেন উল্লেখ করে তিনি আরো জানিয়েছেন, সত্যিই রেডিও তেহরানের ওয়েবসাইটটি বেশ ভালো।


অবশ্য চিঠিতে তিনি রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোনো মতামত দেন নি।
বহলুল: ভাই রাজ্জাক রেডিও তেহরানের অনুষ্ঠান সম্পর্কে মতামত দেয়া হলে একটি চিঠি পুরোপুরি নিখুঁত হয়ে ওঠে। যাই হোক, চিঠি লেখার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।


আসরের এ পর্বে আমরা এক শ্রোতার সঙ্গে কথা বলবো।  ইরানে অনুষ্ঠিত ৩৫তম আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে তেহরানে এসেছিলেন বাংলাদেশের কয়েকজন তরুণ কারী।  তাদের মধ্যে একজন হাফেজা অর্থাৎ মহিলা হাফেজ ছিলেন।
বহলুল: বাহ তা হলে তার সঙ্গে কথা বলা যায়। তা তার নাম এবং পরিচয় কি?
এটি না হয় এই বোনের মুখ থেকেই শুনি ...


রেডিও তেহরানের সঙ্গে আলাপ করার সময় সুন্দর একটি কামনা করেছেন তিনি। গোটা বিশ্বের মুসলিম জাহানের জন্যেই চমৎকার এ কামনা তার।  এবারে তার সে কামনা আমরা শুনবো
বহলুল: বোন সাজেদা খানম চমৎকার বলেছেন।


হ্যাঁ সত্যিই খুবই আন্তরিকভাবে কথা বলেছেন। আমরা আল্লাহ এবং তাঁর রাসূলকে যত ভালবাসব আমাদের সুন্দর হয়ে উঠবে । চমৎকার বলেছেন বোন। ধন্যবাদ।
এতোক্ষণ বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার হাফেজ বোন সাজেদা খানমের কথা শুনছিলেন। বহলুল:এবার তা হলে নজর দেবো ফেসবুকের গ্রুপের খবরে যে সব মন্তব্য হয়েছে সে দিকে। তাই না?


জ্বি। একেবারে ঠিক কথা। আর এজন্য তৈরি হয়েই আছি। ফিলিস্তিনিদের রক্ষার দায় নেই সৌদি আরবের: সাবেক জেনারেল শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে ৪ মে। এ খবরে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের সাবেক সামরিক কমান্ডার জেনারেল আনোয়ার এশকি বলেছেন,তার দেশ ইসরাইলি দখলদারিত্বের মুখে ফিলিস্তিনিদের রক্ষা করতে বাধ্য নয়। একইসঙ্গে তিনি বলেছেন,ইসরাইল নয় বরং ইরানের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের সামরিক অভিযান চালানো উচিত।


দায় কি তাহলে ইসরাইলকে বাঁচানো? জানোয়ার কোথাকার।  ফেসবুক গ্রুপে এ খবরে এমনই কড়া মন্তব্য করেছেন পাঠক বন্ধু আরিফুল ইসলাম শিমুল। পাশাপাশি ইউনুস মিজি বলেছেন, ইসরাইলকে রক্ষার দায় যে আছে তা তো আমরা দেখতেই পাচ্ছি!


বহলুল: বাপরে কথা তো নয় যেন আগুনের গোলা। আর বলবেই না কেনো? সেই যে কথায় বলে না যেমন বুনো ওল তেমনই বাঘা তেঁতুল!
এদিকে একই খবরে আরো কিছু মন্তব্য হয়েছে। পাঠক ভাই মোহাম্মদ হাতেম আলী লিখেছেন,  ওর শরীরে মুসলমানের রক্ত নেই তাই এ ধরনের কথা বলতে পারে।


বহলুল ভাই এ মন্তব্যকেও কি আগুনের গোলা বলবেন?
বহলুল: না বলে উপায় কি! আসলে যেমন কর্ম তেমন ফল। যা কয়েছেন তার জবাবই তো পাবেন! ফিলিস্তিন নিয়ে কোনো ধরণের তামাশা পাঠক বন্ধুরা সহ্য করেন না এটাই প্রমাণিত হয়ে যাচ্ছে। 


এবারে নজর দিচ্ছি আরেকটি খবরের দিকে। পরমাণু সমঝোতা বাতিল হলে বিশ্ব নিরাপত্তা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে: রাশিয়া- শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে ৫ মে। এ খবরে বলা হয়েছে জেনেভায় পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক প্রস্তুতি কমিটির সভা শেষে রাশিয়ার প্রতিনিধিদল এক বিবৃতিতে একথা বলেছে। ২০২০ সালে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বা এনপিটি’র পর্যালোচনা নিয়ে যে সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে তার প্রস্তুতি নিয়ে গতকালের সভায় আলোচনা করা হয়।


ফেসবুক গ্রুপে এ খবরে পাঠক ভাই মো আজহার রুবেল লিখেছেন, আসলে আমেরিকার চালবাজিটাই কেউ বুঝে উঠতে পারছে না। এদিকে মোহাম্মদ মাইনু্দ্দিন লিখেছেন, ঠিক। একই মন্তব্য করেছেন আরো কয়েক ভাই।
এদিকে আরেকটি খবরে শিরোনাম ছিল..


বহলুল: না। না। আজ আর কোনো খবর নয় কারণ সময় শেষ হয়ে এসেছে।
হ্যাঁ ঠিক বলেছেন। তো বন্ধুরা, আসরের সময় শেষ হয়ে এসেছে। পবিত্র মাহে রমজানের রোজা রাখার মধ্য দিয়ে আমাদের আত্মিক উন্নতি হোক এবং মহান আল্লাহর ক্ষমা ও রহমত যেনো আমরা পাই এ কামনার মধ্যদিয়ে আজ এখানেই বিদায় চাইছি। # 

২০১৮-০৬-১২ ১৭:৪০ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য