প্রতি আসরের মতো আজও আলোচনা শুরু করবো একটি হাদিস শুনিয়ে। ইমাম সাজ্জাদ (আ.) বলেছেন, মুমিন ব্যক্তি যখন আল্লাহর কাছে দোয়া করে তখন তার তিনটি লাভ হয়।

এক- হয় তার দোয়া তাৎক্ষণিকভাবে কবুল হয়। অথবা আল্লাহ তায়ালা তার দোয়াকে উপযুক্ত সময়ে বাস্তবায়ন করার জন্য জমা রাখেন। অথবা এই দোয়ার কারণে মুমিন ব্যক্তির সামনে থাকা নিশ্চিত বিপদ আল্লাহ তায়ালা সরিয়ে নেন।

মূল্যবান হাদিস শুনলাম। এবারে চিঠিপত্রের দিকে নজর দেই। আসরের প্রথমেই  হাতে তুলে নিয়েছি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে আসা একটি চিঠি। রাজ্যের পূর্ব বর্ধমানের হাতিপুকুরের সংহতি পল্লী থেকে এটি পাঠিয়েছেন রেডিও তেহরানের শ্রোতা ভাই গোলাম গউস। গত ফেব্রুয়ারি মাসের ৬ তারিখে পাঠানো এ চিঠি সম্প্রতি আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। নিজেকে পুরনো শ্রোতা হিসেবে উল্লেখ করে ভাই গউস রেডিও তেহরানে থেকে প্রচারিত শিশু কিশোরদের অনুষ্ঠান রংধনুর খুব প্রশংসা করেছেন। তিনি লিখেছেন, রংধনু অনুষ্ঠানটি খুবই ভালো লাগে। পাশাপাশি তিনি প্রস্তাব দিয়েছেন, এ অনুষ্ঠানে কুইজ চালু করলে শ্রোতারা আনন্দ পাওয়ার পাশাপাশি তারা জ্ঞান অর্জনে উৎসাহিত হতো।  

বহলুল: প্রস্তাব হিসেবে এটি চমৎকার। তবে কিছু অসুবিধা আমরা এখনো কাটিয়ে উঠতে পারিনি। তাই এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছে না।

জি ভাই গউস, কখনো সুযোগ আসলে আমরা অবশ্যই আবার কুইজ আয়োজনের ব্যবস্থা করব। সে যাই হোক, চিঠিতে আপনি জানতে চেয়েছেন, ইরানের কি কি মাছ পাওয়া যায়?

ইরানে আমাদের পরিচিত মাছের মধ্যে চিংড়ি, রুই, কাপুর, তেলাপিয়া, ইলিশ ও রূপ চাঁদাসহ নানা ধরণের মাছ পাওয়া যায়। এ ছাড়া, মিষ্টিপানি এবং সাগরের আরও নানা ধরেণের মাছ ইরানে পাওয়া যায়। তার সবগুলোর পরিচয় দেয়া সম্ভব নয়। কারণ এ সব মাছের অনেকগুলোই বাংলাদেশ বা ভারতের পশ্চিমবঙ্গে দেখা যায় না। যাই হোক চিঠি লেখার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। ভবিষ্যতে আরো চিঠি দেবেন বলে আশা করছি।

না আর বিলম্ব নয়।

বিলম্ব! মানে কিসের বিলম্ব?

বহলুল: আমি মনে হয় ধরতে পেরেছি বিষয়টা। বিশেষজ্ঞ-জীবনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা শুনতে চাইছেন তাই না?

একদম ঠিক বলেছেন বহলুল ভাই। এ জন্য আর দেরি করতে চাই না। কারণ মনে রাখার মতো একটি ঘটনা আমাদের শুনিয়েছেন বাংলাদেশের বগুড়ার শহীদ জিয়া মেডিক্যাল কলেজের চর্ম ও যৌন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা.শাহাবউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী।  

বহলুল: দারুন অভিজ্ঞতা। আমাদেরও মনে থাকবে ঘটনাটি।

পাশাপাশি খাবার-দাবার বা অন্য কোনো জিনিস থেকে আমাদের এলার্জি হয় কিনা সে ব্যাপারে সতর্ক হতে হবে। না হলে হয়ত বিপদ ঘটতে পারে। এ ছাড়া মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসে কৃতজ্ঞতা স্বরূপ রোগী যে স্থায়ীভাবে নামাজ কায়েম করেছেন সে কথাও আমাদের উজ্জীবিত করেছে। আমাদেরকে চমৎকার এবং শিক্ষণীয় অভিজ্ঞতা শোনানোর জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ অধ্যাপক ডা.শাহাবউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী।

বহলুল: আর সে সাথে ভবিষ্যতে এমন মূল্যবান আরো অনেক অভিজ্ঞতা আমাদের শোনাবেন কিন্তু। 

আসরের এ পর্বে রেডিও তেহরানের ফেসবুক গ্রুপের খবরে যে সব মন্তব্য হয়েছে সে দিকে নজর দেব। বরযাত্রী বহরে সৌদি বিমান হামলা;নিহত ১১- শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে ৩ জুলাই। এ খবরে বলা হয়েছে, ইয়েমেনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় সাদা প্রদেশে একটি বরযাত্রী বহরের ওপর সৌদি আরবের বিমান হামলায় অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় বহু মানুষ আহত হয়। সৌদি আরব যখন ইয়মেনের ওপর বিমান হামলা বাড়িয়ে দিয়েছে তখন বরযাত্রী বহরের ওপর বর্বর এ হামলার ঘটনা ঘটলো।

রেডিও তেহরানের ফেসবুক গ্রুপে এ খবরে হাসান বিন নজরুল যে মন্তব্য করেছেন তা প্রতিনিধিত্বশীল হয়ে গেছে। তিনি লিখেছেন, সৌদি রাজ পরিবার প্রভু হিসেবে আল্লামা ট্রাম্প ও আল্লামা নেতানিয়াহুকে মেনে নিয়েছে। কাজেই হাসরের ভয় তাদের আছে বলে মনে হয় না। এ বক্তব্যের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন অনেকেই।

বহলুল: সত্যি এবং সাহসী কথাকে সবাই সমর্থন করবে এ আর নতুন কি!

এদিকে ইরান তেল বিক্রি করতে না পারলে কেউই পারবে না: রুহানির পাল্টা হুমকি- শীর্ষক খবরটি প্রকাশিত হয়েছে ৪ জুলাই। এ খবরে বলা হয়েছে, ইরানের প্রেসিডেন্ট ড.হাসান রুহানি বলেছেন,তার দেশের জনগণ কখনই বলদর্পী শক্তিগুলোর কাছে আত্মসমর্পণ করবে না এবং ইতিহাস সাক্ষী ইরানি জাতি সবসময়ই আগ্রাসী শক্তিকে পরাস্ত করেছে। অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় একদল প্রবাসী ইরানিদের সমাবেশে প্রেসিডেন্ট রুহানি এ কথা বলেন।

রেডিও তেহরানের ফেসবুক গ্রুপে এ খবরও স্বাভাবিকভাবেই আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। বন্ধু মো আবদুস সালাম লিখেছেন, সুন্দ‌‌র সঠিক সিন্ধান্ত! তার এ কথার মধ্য দিয়ে সব মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি ফুটে উঠেছে।

বহলুল: চমৎকার। তবে আজ আর কোনো দিকে নজর দেয়া যাবে না। সময় শেষ হয়ে এসেছে।

জ্বি বহলুল ভাই। সময় ফুরিয়ে গেছে। বন্ধুরা,এবারে প্রিয়জনের  আসর থেকে বিদায় নেয়ার পালা, যারা চিঠি লিখছেন,ইমেইল করছেন,ওয়েবসাইটের খবরে মন্তব্য করছেন এবং প্রিয়জনের আসরে এতক্ষণ আমাদের সঙ্গ দিয়েছেন তাদের সবাইকে আবারো শুভেচ্ছা জানিয়ে এখানে বিদায় চাইছি। কথা হবে আগামী আসের।#

২০১৮-০৮-২৭ ১৭:৪৮ বাংলাদেশ সময়
মন্তব্য