২০১৮-১০-৩০ ১৭:২৫ বাংলাদেশ সময়

বাস্তব জগতের সঙ্গে ভার্চুয়াল জগতের সম্পর্কটা এখন এতটাই ঘনিষ্ঠ যে, একটি অপরটির পরিপূরকে পরিণত হয়েছে।

শহুরে পরিবেশে ভার্চুয়াল বা সাইবার জগতবিহীন জীবন এখন কল্পনাই করা যায় না। কিন্তু স্বাভাবিকভাবেই বাস্তব জগতের মতো ভার্চুয়াল জগতও নিষ্কন্টক নয়। এই জগতেও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা জরুরি। ভার্চুয়াল বা সাইবার নিরাপত্তার অর্থ হচ্ছে, এই জগতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব কিছুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। তবে ভার্চুয়াল জগত এমন এক মহাসমুদ্রের মতো যেখানে অমূল্য সম্পদের পাশাপাশি রয়েছে মহাবিপদের আশঙ্কা। এই মহাসমুদ্রে যারা প্রবেশ করবেন তারাই আক্রান্ত হবেন বিষয়টি আবার এরকমও নয়। তবে সবার জন্যই এ আশঙ্কা থেকে যায়।

এর আগেও আমরা বলেছি ভার্চুয়াল জগতে একটি মহাবিপদ হচ্ছে কম্পিউটার ভাইরাস। কম্পিউটারের পরিভাষায় ভাইটাল ইনফরমেশন রিসোর্সেস আন্ডার সিজ-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হলো ভাইরাসএর অর্থ আভিধানিক অর্থ হচ্ছে, গুরুত্বপূর্ণ উৎসগুলো বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। প্রখ্যাত গবেষক ফ্রেড কোহেন কম্পিউটার ভাইরাসের নামকরণ করেছেন কম্পিউটারে ভাইরাস জীবন্ত কোন কিছু নয়, কিন্ত এটি এমন একটি প্রোগ্রাম যা কম্পিউটারে জীবন্ত ভাইরাসের মতই আচরণ করে। চিকিৎসাবিদ্যায় ভাইরাসের কারণে যেমন মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে, ঠিক তেমনি একটি কম্পিউটার সিস্টেমও ভাইরাসের অত্যাচারে অকেজো হয়ে যেতে পারে। কম্পিউটার ভাইরাস মানুষের তৈরি একটি প্রোগ্রাম।

বিভিন্ন রকমের ভাইরাস আছে। একেকটা ভাইরাসের আক্রমণ-কৌশল একেক রকমের। কম্পিউটার ব্যবস্থা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে কিনা তা বোঝার জন্য কয়েকটি লক্ষণ গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে। এগুলো হলো- কম্পিউটার স্লো হয়ে যাওয়া তথা কোন প্রোগ্রাম লোড বা রান হতে অস্বাভাবিক সময় নেয়া; স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্টোরেজ ডিক্সের ভলিউমের নাম পরিবর্তিত হয়ে যাওয়া; হার্ডডিক্সে ব্যাড সেক্টর দেখা দেওয়া; ডট ইএক্সই (.exe) ফাইলের আকার পরিবর্তন হওয়া;সিস্টেম এর সময় ও তারিখ এর অপ্রত্যাশিত পরিবর্তন ঘটে যাতে পারে; কোন কারণ ছাড়াই মেমোরি থেকে ফাইল ডিলিট হয়ে যেতে পারে।

এছাড়া সিস্টেম এর সেটিং স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিবর্তন হতে পারে; ডিসপ্লে রেজুলেশন তথা সেটিং পরিবর্তন হতে পারে; ফোল্ডার অপশন হাইড হয়ে যেতে পারে; ফ্রি মেমোরি স্পেস পরিমাণে কম দেখাতে পারে; হার্ডডিক্সের পার্টিশন নষ্ট হয়ে ডাটা হারিয়ে যেতে পারে; কম্পিউটারের বায়োস (BIOS) এর ডেটা মুছে ফেলে কম্পিউটার অচল করে দিতে পারে; হঠাৎ বিভিন্ন অপ্রত্যাশিত ইরর মেসেজ দিতে পারে; প্রয়োজনীয় বিভিন্ন সফটওয়্যার ইন্সটল হতে সময় নিতে পারে অথবা এই বার্তা দিতে পারে যে, এটি ইনস্টল হবে না; যে কোন সময় কম্পিউটার হ্যাং হতে পারে অথবা হঠাৎ রিস্টার্ট হতে পারে'; ফলে আনসেভ যে কোন ডকুমেন্ট হারিয়ে যেতে পারে।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের অস্বাভাবিক আচরণ লক্ষ্য করা যেতে পারেএসবের কোনো একটি অথবা একাধিক লক্ষণ প্রকাশ পেলে ধরে তখন ধরে নেয়া যেতে পারে কম্পিউটারটি ভাইরাসে আক্রান্ত। কম্পিউটার ভাইরাস মোকাবেলার পথ রয়েছে। কারণ ভাইরাসকে প্রতিরোধ করা ও ধ্বংস করার জন্য প্রতিনিয়ত কাজ চলছে। বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এ লক্ষ্যে তৎপরতা চালাচ্ছে। তারা তৈরি করছে একের পর এক অ্যান্টি-ভাইরাস। নিজের কম্পিউটার ব্যবস্থাকে সুরক্ষিত রাখতে অ্যান্টি-ভাইরাস ইন্সটল করা জরুরিএ ধরণের অ্যান্টি-ভাইরাস কম্পিউটারকে ক্ষতিকারক ভাইরাস থেকে রক্ষা করে। পাশাপাশি অ্যান্টি ভাইরাস প্রোগ্রামকে প্রতিনিয়ত আপডেট করতে হবেকোনো সফটওয়্যার ইন্সটল করার আগে ভাল করে দেখে নিতে হবে। পাবলিশার কে তা ভালোভাবে দেখে নিতে হবে। যদি তা খারাপ হয় অথবা বিশ্বস্ত না হয়, তাহলে ইন্সটল থেকে বিরত থাকতে হবে। কম্পিউটারের ফায়ারওয়াল অন রাখতে হবেকোন স্প্যাম ইমেইল অন করা থেকে বিরত থাকতে হবেস্প্যাম ইমেইল-এ যদি কোন ফাইল থাকে কিংবা কিছু ডাউনলোড করতে বলে অথবা নাম-ঠিকানা দিতে বলে তাহলে তা দেওয়া যাবে না।

আসলে যে কোনো ব্যক্তি চাইলেই কম্পিউটার ব্যবহার করতে পারেন এবং ইন্টারনেট বা ভার্চুয়াল জগতে প্রবেশ করতে পারেন। কিন্তু এই জগতে নিরাপদ থাকতে প্রত্যেক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর জন্য কিছু সাধারণ জ্ঞান ও প্রশিক্ষণ জরুরি। কীভাবে প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে,কীভাবে ব্যবহার করলে নিরাপদ থাকা যাবে,অন্যকে নিরাপদ থাকতে কীভাবে উৎসাহিত করা যাবে-সবারই এসব  বিষয়ে কৌশল জানা থাকা দরকার। বাংলাদেশ ও ভারতের মতো দেশগুলোতে যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন তাদের বড় একটা অংশই এখনও প্রযুক্তি সম্পর্কে ততোটা জ্ঞান রাখেন না। ফলে বিভিন্ন সময় প্রযুক্তি ব্যবহার করতে গিয়ে ব্যক্তি বিশেষকে সমস্যায় পড়তে হয়। অনেক সময় বড় ধরনের সমস্যা সৃষ্টির কারণে শাস্তির মুখেও পড়তে হচ্ছে। এ অবস্থায় সার্বিক সতর্কতা ও যথোপযুক্ত জ্ঞান জরুরি। #

 

পার্সটুডে/সোহেল আহম্মেদ/মো: আবুসাঈদ/ ৩০

খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন

ট্যাগ

মন্তব্য