২০১৯-০৯-১১ ১৬:৪৫ বাংলাদেশ সময়

সুপ্রিয় পাঠক/শ্রোতা! ১১ সেপ্টেম্বর বুধবারের কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি আমি বাবুল আখতার। আশা করছি আপনারা প্রত্যেকে ভালো আছেন। আসরের শুরুতে ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম তুলে ধরছি। এরপর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবরের বিশ্লেষণে যাবো। বিশ্লেষণ করবেন সহকর্মী সিরাজুল ইসলাম।

প্রথমে বাংলাদেশে:

  • বাংলাদেশকে বিপদগ্রস্ত করার চক্রান্ত শুরু হয়েছে: মির্জা ফখরুল-দৈনিক প্রথম আলো
  • ৯৩ শতাংশ বাড়িতে আওয়ামী লীগ সরকার বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী- দৈনিক কালেরকণ্ঠ
  • ছাত্রলীগের কমিটির বিষয়টি নেত্রী সরাসরি দেখছেন: কাদের-দৈনিক যুগান্তর
  • তালায় ডেঙ্গুতে আরো এক গৃহবধূর মৃত্যু: দৈনিক ইত্তেফাক
  • বাংলাদেশে নির্বাচনের পর রাজনৈতিক স্থান সঙ্কুচিত হওয়ায় যুক্তরাজ্যের উদ্বেগ-দৈনিক মানবজমিন
  • ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, বাবা কে?-দৈনিক নয়াদিগন্ত

ভারতের খবর:

  • পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই, কলকাতায় এসে বললেন স্মৃতি ইরানি-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা
  • আইনের ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল!‌ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দৈনিক আজকাল
  • ব্রাহ্মণরাই শ্রেষ্ঠ, সমাজের পথপ্রদর্শক’, বিতর্কিত মন্তব্য স্পিকার ওম বিড়লার

 

পাঠক/শ্রোতা! এবারে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি খবরের বিশ্লেষণে যাব। জনাব সিরাজুল ইসলাম কথাবার্তার আসরে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি।

কথাবার্তার প্রশ্ন (১১/৯/২০১৯)

১. নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হচ্ছে না অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনার পর্যবেক্ষণ কি?

২. মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার জন বোল্টনকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কেন ট্রাম্প তাকে সরিয়ে দিলেন বলে আপনার মনে হয়

জনাব সিরাজুল ইসলাম আপনাকে আবারো ধন্যবাদ

 

পাঠক/শ্রোতা! এবারে চলুন, বাছাইকৃত কয়েকটি খবরের বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। প্রথমেই বাংলাদেশ

বাংলাদেশকে বিপদগ্রস্ত করার চক্রান্ত শুরু হয়েছে: মির্জা ফখরুল-দৈনিক প্রথম আলো -দৈনিক কালেরকণ্ঠ

ভারতের আসাম রাজ্যের নাগরিক পঞ্জি ইস্যুতে সেখানকার মন্ত্রীদের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাংলাদেশকে বিপদগ্রস্ত করার জন্য গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের পর কোনো বাংলাদেশি ভারতে যায়নি। আজ বুধবার সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এই মানববন্ধন হয়। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘প্রতিবেশী দেশ, বন্ধুদেশ, তাদের আসাম থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশিদের খেদিয়ে বের করে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাবে। স্পষ্ট করে বলতে চাই, কোনো বাংলাদেশি মুক্তিযুদ্ধের পরে ভারতে যায়নি। গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে বাংলাদেশকে আবার বিপদগ্রস্ত করার জন্য।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রনীতির সমালোচনা করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, সরকারের সাহস নেই। নতজানু পররাষ্ট্রনীতি কারণে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে পারছে না সরকার। খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বিএনপির মহাসচিবের ভাষ্য, ‘খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। তিনি সাহায্য ছাড়া চলতে পারেন না। কিন্তু সরকার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, তিনি সুস্থ আছেন। অবিলম্বে তাঁর সুচিকিৎসার জন্য মুক্তি দাবি করছি।

৯৩ শতাংশ বাড়িতে আওয়ামী লীগ সরকার বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী- দৈনিক কালেরকণ্ঠ

দেশের ৯৩ শতাংশ বাড়িতে আওয়ামী লীগ সরকার বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বুধবার ভিডিও কনফারেন্সে চারটি বিদ্যুৎকেন্দ্র, আটটি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র এবং ১০ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করে একথা জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ২০০১ সালে যে চার হাজার মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুৎ রেখে গিয়েছিল সেটা বিএনপি তিন হাজার দুইশ মেগাওয়াটে নামিয়ে এনেছিল।

গ্যাস বিক্রি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গ্যাস বিক্রির জন্য আমার ওপর চাপ ছিল ২০০১ সালে, আমরা বলেছিলাম আমাদের কত চাহিদা আছে জানি না, সেটা আগে বের করে দেন। ৫০ বছরের রিজার্ভ রেখে তারপর আমরা বিক্রি করবো। কিন্তু বিএনপি রাজি হয়ে গিয়েছিল। নেবে যুক্তরাষ্ট্র, কিনবে ভারত। যেজন্য ক্ষমতায় আসতে পারিনি।

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলায় জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হয় ১৯৬২ সালে। নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎকেন্দ্রটির পাশাপাশি এবার একটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজও সম্পন্ন হয়েছে কাপ্তাইয়ে। আজ বুধবার  ৭.৪ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্রটি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

ছাত্রলীগের কমিটির বিষয়টি নেত্রী সরাসরি দেখছেন: কাদের-দৈনিক যুগান্তর

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটিতে কোনো সংযোজন, বিয়োজন, পরিবর্তন, পরিবর্ধনের প্রশ্ন এলে সেটা সরাসরি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই করবেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সিদ্ধান্ত আকারে কোনো কিছু না এলে আমি কিছু বলতে পারি না।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে প্রধানমন্ত্রী দেখছেন। ছাত্রলীগে কোনো সংযোজন, বিয়োজন, পরিবর্তন, সংশোধনের প্রশ্ন এলে নেত্রী নিজেই করবেন।

তালায় ডেঙ্গুতে আরো এক গৃহবধূর মৃত্যু: দৈনিক ইত্তেফাক

সাতক্ষীরার তালা সদরের এক গৃহবধূ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে তিনি মারা যান। এ নিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত মোট পাঁচজন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। নিহতের নাম রহিমা বেগম (৪৩)। তিনি তালা সদরের আটারই গ্রামের রফিকুল ইসলাম মোড়লের স্ত্রী।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক ফিজিসিয়ান (আরপি) ডা. শৈলেন্দ্রনাথ বিশ্বাস জানান, ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে রহিমা বেগম মারা গেছেন। রহিমা বেগমের ছেলে হারুন মোড়ল জানান, তার মা ডায়বেটিকস রোগে ভুগছিলেন। এর মধ্যে হঠাৎ তার মায়ের প্রচণ্ড জ্বর হয়। জ্বর না কমায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৮ সেপ্টেম্বর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে ডেঙ্গু জ্বর ধরা পড়ে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. আবু মাউদ জানান, গত ৮ সেপ্টেম্বর তাকে তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে খুলনা মেডিকেলে রেফারকরা হয়। এরপর সেখানে তার মৃত্যু হয়।

বাংলাদেশে নির্বাচনের পর রাজনৈতিক স্থান সঙ্কুচিত হওয়ায় যুক্তরাজ্যের উদ্বেগ-দৈনিক মানবজমিন

বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করা ও ২০১৮ সালের নির্বাচনের পর রাজনৈতিক স্থান সঙ্কুচিত করার পদক্ষেপ (অ্যাকশন) নিয়ে  উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য। জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের হাই কমিশনারের রিপোর্টকে স্বাগত জানিয়ে এমন উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বৃটেনের মানবাধিকার বিষয়ক ইন্টারন্যাশনাল অ্যাম্বাসেডর রিটা ফ্রেঞ্চ।

তিনি বাংলাদেশ, ক্যামেরন, জিম্বাবুয়ে, ভিয়েতনাম, হংকং ও বাহরাইনে ভয়াবহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় যুক্তরাজ্যের উদ্বেগ তুলে ধরে তা কাউন্সিলকে সমাধানের আহ্বান জানান। এতে বাংলাদেশ অংশে বলা হয়, বাংলাদেশ মানবাধিকার রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং গণতান্ত্রিক মূলনীতিগুলো সমুন্নত রাখতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এখন তাদেরকে তা কর্মে পরিণত করতে হবে। সংবিধানে যে মূল্যবোধের কথা বলা আছে তার প্রতিফলন ঘটাতে হবে।

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, বাবা কে?-দৈনিক নয়াদিগন্ত

ঝালকাঠি শহরের ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিশু ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় শিশুটি মা ও সৎ বাবাকে পুলিশ আটক করেছে। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে শিশুটিকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি থানা হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।রাতেই শহরের কালাবাগান এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে শিশুটির মা সাহেরা আক্তার কাজল ও সৎ বাবা মো. আলমকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্ত শেষে ঝালকাঠি সদর থানার ওসি (তদন্ত) মো: আবু তাহের মিয়া জানান, কয়েক মাস আগে শহরের কাঠপট্টি এলাকার বাড়িতে শিশুটিকে কয়েকজন পুরুষের সাথে শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করে তার মা ও সৎ বাবা।আর এতে শিশুটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। ভিকটিম শিশুটিকে বুধবার ডাক্তারি পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় তদন্ত করে আইনগত অন্যান্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও পুলিশ জানায়। ভিকটিম শিশুটি শহরের একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ছে। তবে শিশুর গর্ভের সন্তানটির বাবা কে তা এখনো বলতে পারেনি ওই নির্যাতিত শিশু।

এবার ভারতে বিস্তারিত খবর তুলে ধরছি

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই, কলকাতায় এসে বললেন স্মৃতি ইরানি-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে রাস্তায় নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তখন শহরে এসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ফের স্পষ্ট করে দিলেন, বাংলায় নাগরিক পঞ্জি করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।মোদী সরকারের ১০০ দিন উপলক্ষে মঙ্গলবার কলকাতায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন স্মৃতি। তুলে ধরেন ১০০ দিনে মোদী সরকারের সাফল্যের খতিয়ান।

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই, কলকাতায় এসে বললেন স্মৃতি ইরানি

 

কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ থেকে নাগরিক পঞ্জি— সবই সরকারের সাফল্য হিসেবে ব্যাখ্যা করেন স্মৃতি।জাতীয় নাগরিক পঞ্জির প্রসঙ্গেই উঠে আসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গ। স্মৃতির বক্তব্য, এক সময় ভুয়ো ভোটার আটকাতে সচিত্র ভোটার কার্ডের পক্ষে সওয়াল করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এটা মমতার দ্বিচারিতা।

আইনের ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল!‌ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দৈনিক আজকাল

যোগীর রাজ্যে আইনের ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। আর তা নিয়ে এখন জোর শোরগোল পড়ে গিয়েছে।‌ বিজেপি নেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে উপর্যুপরি ধর্ষণ, তা ক্যামেরাবন্দি এবং ব্ল্যাকমেল করার অভিযোগ এনেছেন উত্তরপ্রদেশের এক আইনের ছাত্রী। চিন্ময়ানন্দকে এখনও জেরা করা হয়নি। এখনও পর্যন্ত তাঁর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগই রুজু করা হয়নি বলে খবর।

সূত্রের খবর, দিল্লি পুলিস এবং ম্যাজিস্ট্রেটকে দেওয়া বিবৃতিতে ২৩ বছরের ওই নির্যাতিতা ছাত্রী অভিযোগ করেন, এক বছর ধরে তাঁকে যৌন নিগ্রহ করেন ওই রাজনীতিবিদ। ওই নেতা বহু আশ্রম এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালান। সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বিশেষ অনুসন্ধানকারী দল সিটের সামনে ১৫ ঘণ্টার প্রশ্নোত্তরের সময় সব অভিযোগ জানান নির্যাতিতা ছাত্রী। এমনকী তাঁর দেওয়া ভিডিও দেখেন সিটের আধিকারিকরা।

ব্রাহ্মণরাই শ্রেষ্ঠ, সমাজের পথপ্রদর্শক, বিতর্কিত মন্তব্য স্পিকার ওম বিড়লার

“ব্রাহ্মণরা চিরদিনই সমাজে উন্নত স্থান পেয়ে আসছেন। এটা ওঁদের ত্যাগ আর তপস্যার পরিণাম। আর একারণেই ব্রাহ্মণরা চিরদিন সমাজের পথপ্রদর্শকের ভূমিকা পালন করেন। কথাগুলি কোনও হিন্দু ধর্মগুরু বা ধর্মীয় সংগঠনের নেতা বলছেন না। বলছেন খোদ লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। সাংবিধানিক পদে থাকা সত্ত্বেও একপ্রকার বর্ণভেদে ইন্ধন দিলেন স্পিকার। স্বাভাবিকভাবেই ওম বিড়লার এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা শুরু হয়েছে।

তাঁর অপসারণের দাবিও উঠছে। মূল ঘটনাটি রাজস্থানের কোটার। গত রবিবার সেখানে অখিল ভারত ব্রাহ্মণ মহাসভায় যোগ দেন স্পিকার ওম বিড়লা। সেখানেই একথা বলেন স্পিকার। পরে টুইটারেও ফলাও করে তিনি একই কথা লেখেন। তিনি ব্রাহ্মণ্যবাদে বিশ্বাসী। একথা কারওরই অজানা নয়। সংঘ পরিবারের সদস্য বিড়লা যে হিন্দুত্বের আদর্শে অনুপ্রাণিত হবেন এতে অবাক হওয়ারও কিছু নেই। কিন্তু, তা বলে এত বড় সাংবিধানিক পদে থাকা সত্ত্বেও কীভাবে বর্ণভেদে উসকানিমূলক কথা বলছেন স্পিকার, তা ভেবে পাচ্ছেন না নেটিজেনরা। নিরপেক্ষতার শপথ নিয়ে যিনি সাংবিধানিক পদে বসেছেন, তিনি কীভাবে একটি বর্ণের শ্রেষ্ঠত্বের প্রশ্নে সওয়াল করতে পারেন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।#

পার্সটুডে/বাবুল আখতার/১১

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

 

 

ট্যাগ

মন্তব্য