ডিসেম্বর ১৯, ২০২১ ১৮:৫৪ Asia/Dhaka
  • ইরানের গোরগানে বাংলাদেশের ৫০তম বিজয় দিবস উদযাপন

ইরানের গোলেস্তান প্রদেশের গোরগানে আল মোস্তফা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকী, মহান বিজয় দিবস ও মুজিববর্ষ উদযাপন করা হয়েছে।

গতকাল (শনিবার) এই অনুষ্ঠানে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তেহরানে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত এ. এফ. এম গওসোল আজম সরকার। 'স্বাধীনতার গুরুত্ব ও তাৎপর্য' নিয়ে আলোচনা করেন আল মোস্তফা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. কামাল হোসাইনি।  

ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে রাষ্ট্রদূতের অংশগ্রহণ

অনুষ্ঠানের আয়োজক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি উপস্থিত সকলকে অভিনন্দন জানিয়ে রাষ্ট্রদূত এ. এফ. এম গওসোল আজম সরকার বলেন, 'বাংলাদেশের সামনের দিগন্ত খুবই উজ্জ্বল'।

রাষ্ট্রদূত তাঁর বক্তৃতায় গোরগানে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিকে তাদের জন্য একটি সুযোগ হিসেবে বিবেচনা করেন এবং আল মোস্তফা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাথে সংশ্লিষ্টদের প্রশংসা করেন।

আল মোস্তফা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. কামাল হোসাইনি

ড. কামাল হোসাইনি তাঁর বক্তব্যে স্বাধীনতা এবং রাজনৈতিক বিচ্ছিন্নতার মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করেন, যার অর্থ হচ্ছে জনগণের সম্পূর্ণ সার্বভৌমত্ব এবং সেই দেশের উপর একটি জাতির দেশীয় মূল্যবোধ।

তিনি আরো বলেন: "সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা এবং অর্থনৈতিক স্বাধীনতাসহ স্বাধীনতার বিভিন্ন দিক অর্জিত হলেই প্রকৃত স্বাধীনতা অর্জিত হবে।"

অনুষ্ঠানে ছাত্র প্রতিনিধি জাহিদুল ইসলাম বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস ও ৫০ বছরের প্রাপ্তি নিয়ে আলোচনা করেন।

প্রথম প্রেসিডেন্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জীবনীর ওপর মোঃ ইব্রাহীম খলিলের অনুবাদকৃত একটি ফার্সি ভাষার বুকলেট সরবরাহ করা হয়। অনুষ্ঠানে ইন্ডিয়া, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, তাজাকিস্তান আফগানিস্তান, আফ্রিকাসহ প্রায় ১৬টি দেশের ছাত্র প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন শাখায় প্রধান ও ছাত্র প্রতিনিধিদের উপহার ও দুপুরের খাবারের মাধ্যমে উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।#

পার্সটুডে/আশরাফুর রহমান/১৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

ট্যাগ