জানুয়ারি ২৭, ২০২২ ১৯:১৮ Asia/Dhaka
  • নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা
    নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা

বাংলাদেশে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন কঠিন হলেও এটাই একমাত্র সমাধান বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। টানা পাঁচ বছর দায়িত্ব পালনের মেয়াদ উত্তীর্ন হবার প্রাক্কালে আজ বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে নির্বাচন ভবনের আয়োজিত মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন সিইসি।

কে এম নূরুল হুদা বলেন, ‘দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন করা আর জরুরি সময়ে সামরিক সরকারের অধীনে নিবার্চনের মধ্যে পার্থক্য আছে। এর আগে শামসুল হুদা’র নির্বাচন কমিশন প্রশংসা পেয়েছে। তখন যে পরিবেশ পরিস্থিতি ছিল সেটা ছিল একটা জরুরি অবস্থার মধ্যে। ক্যান্টনমেন্টের আশীর্বাদ নিয়ে ওই নির্বাচন করা হয়েছিল। তবে এ অবস্থা গণতান্ত্রিক পরিবেশকে সম্প্রসারিত করে না।

গণতন্ত্রে উন্মুক্ত পরিবেশ থাকতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এখানে বন্দুকের নল অথবা লাঠি উঁচিয়ে নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রন  করা যায় না। এটার জন্য দরকার  উন্মুক্ত পরিবেশ। সেখানে ভুল-ভ্রান্তি হবে। সেখানে সংঘাত হবে, বিতর্ক হবে। মিছিল হবে, মিটিং হবে-এখন যেমন হয়।

তিনি বলেন, বন্দুক মাথায় রেখে নির্বাচনের অবস্থা একটা হতে পারে, চিরদিনই সেটা হতে পারে না। তার জন্য খুলে দিতে হবে দরজা। এখন সেই দরজা খুলে গেছে। এখন রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে নির্বাচন হয়, এ নির্বাচন অত্যন্ত কঠিন। কিন্তু সম্ভব, এর মধ্য দিয়েই আমাদের যেতে হবে।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে বিনা ভোটে বা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচনের ব্যাপকতা প্রসঙ্গে নূরুল হুদা বলেন, এতে কমিশনের কিছু করার নেই। এটা রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের বিষয়। বিনা ভোটে কেন নির্বাচিত হলো তা দেখার এখতিয়ার কমিশনের নেই।  #

পার্সটুডে/আব্দুর রহমান খান/রেজওয়ান হোসেন/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।  

 

ট্যাগ