এপ্রিল ২৯, ২০২২ ১৮:০৩ Asia/Dhaka
  • বাংলাদেশে জুমাতুল বিদায় বিশ্ব কুদস দিবস পালন

আজ ২৭ রমজান শুক্রবার, আন্তর্জাতিক আল কুদস দিবস। মুসলমানদের প্রথম কেবলা পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস দখলমুক্ত করার আন্দোলনের প্রতীকী দিন এটি। 

১৯৬৭ সাল থেকে ইসরাইল বায়তুল মুকাদ্দাস দখল করে আছে। ইহুদিবাদীদের কবল থেকে মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলাসমৃদ্ধ নগরী জেরুজালেম আল-কুদসকে মুক্ত করার প্রত্যয় নিয়ে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের স্থপতি ইমাম খোমেনী (রহ.) ১৯৭৯ সালে প্রথম এ দিবস পালন করার কথা ঘোষণা করেন। তাঁর আহ্বানে সাড়া দিয়ে তখন থেকে প্রতি বছর রমজান মাসের শেষ শুক্রবার বিশ্ব কুদস দিবস হিসেবে পালিত হয়ে এসেছে।

আজ বিশ্ব  মুসলিমদের সাথে একযোগে বাংলাদেশেও পালিত হয়েছে আল-কুদস দিবস। বিশ্বজুড়ে দিনটি এমন এক সময় পালিত হতে যাচ্ছে যখন ইসরাইল আবারো বায়তুল মোকাদ্দাসে মুসল্লিদের ওপর হামলা শুরু করেছে। ফিলিস্তিনের অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র আল-আকসা মসজিদে গত ১৫ এপ্রিল  শুক্রবার ইসরাইলের নিরাপত্তা বাহিনী   হামলা চালিয়েছে । ইসরাইলি পুলিশের হামলা ও এর জেরে সৃষ্ট সহিংসতায় কমপক্ষে ৬৭ জন ফিলিস্তিনি আহত হন।

এ প্রেক্ষাপটে   এবারের আল-কুদস দিবস আরো বেশি  তাৎপর্যপূর্ণ  হয়ে উঠেছে  উল্লেখ করে  আল-কুদস কমিটি বাংলাদেশ-এর সেক্রেটারি জেনারেল মোস্তফা তারিক হাসান রেডিও তেহরানকে বলেন, আল-কুদস মুক্ত করার জন্য ইমাম খোমেনী (রহ.) এর আহবানের গুরুত্ব আরো বেশী বুঝতে পারছে  ইসলামী উম্মাহ। 

এ প্রসঙ্গে   বাংলাদেশের  অন্যতম ইসলামী রাজনৈতিক সংগঠন ইসলামী আন্দোলন, বাংলাদেশ- এর  মুখপাত্র এবং যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান রেডিও তেহরানকে এক সাক্ষাৎকারে মানবতা আর  ধর্মীয় স্বাধীনতার  পক্ষে সোচ্চার  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মুসলিম বিরোধিতার নিন্দা জানান । একই সাথে মুসলিম দেশগুলোর সহযোগিতা সংস্থা- ওআইইসি’র কার্যকর  ভূমিকা না থাকা  এবং  মুসলিম রাষ্ট্র সমূহের  নেতাদের ঐক্যবদ্ধ  প্রচেষ্টার অভাবকে  দুর্ভাগ্যজনক বলে  মন্তব্য  করেন।  

এদিকে  বরকতপূর্ণ পবিত্র রমজান  মাসের শেষ জুমার দিন প্রতিটি মসজিদে ছিল উপচে পড়া ভিড়। মসজিদের ভেতরে স্থান সংকুলান না হওয়ায় বিপুল সংখ্যক মুসল্লিকে গ্রীষ্মের প্রচণ্ড তাপ  মাথায় নিয়ে খোলা স্থানে বা  রাস্তায় খবরর কাগজ বা  জায়নামাজ বিছিয়ে  নামাজ আদায় করতে হয়েছে।   এ সময় মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করে নিজেদের গুনাহ মাফের জন্য দোয়া কামনা করেছেন মুসল্লিগণ। একই সাথে বিশ্ব মুসলিমদের জন্য বিশেষ করে প্যালেস্টাইন  ও কাশ্মীরের মুসলমানদের মুক্তির জন্য এবং  বাংলাদেশের অগ্রগতি ও  শান্তি  কামনা করে  মোনাজাত করা হয়। 

এর আগে গতরাতে  ধর্মীয় গাম্ভীর্য ও ইবাদতের মধ্য দিয়ে পবিত্র শবেকদর পালিত হয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন মসজিদে নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত, জিকির ও আলোচনা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রাতটি উদযাপন করেন মুসল্লিরা। এ রাতে দেশের বেশির ভাগ মসজিদে তারাবির নামাজে পবিত্র কোরআন খতম হয়। অনেক মসজিদে মধ্যরাতে কিয়ামুল লাইল বা তাহাজ্জুদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ব জাকের মঞ্জিলে  অনুষ্ঠিত হয় বড় জামাত 

 দক্ষিণাঞ্চলে জামাতুল বিদার সবচেয়ে বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয় ফরিদপুরের বিশ্ব জাকের মঞ্জিলে। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক মুসুল্লীয়ান এ দরবার শরিফে উপস্থিত হয়ে জামাতুল বিদার নামাজে অংশ গ্রহণ করে এবং  বিশ্বজাকের মঞ্জিলের পীর মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ খাজাবাবা ফরিদপুরী’ র মাজার  জিয়ারতে অংশ নেন।

এছাড়াও বরিশালের চরমোনাই দরবার শরিফ, পিরোজপুরের ছারছিনা দরবার শরিফ, ঝালকাঠির নেসাবাদের কায়েদ ছাহেব হুজুরের দরবার শরিফ, বরগুনার মোকামিয়া দরবার শরিফ, পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে হজরত ইয়ার উদ্দিন খলিফা (রঃ) ছাহেবের দরবার শরিফ মসজিদেও জামাতুল বিদার নামাজে অংশ নেন বিপুল সংখ্যক মুসুল্লি ।#

পার্সটুডে/এআরকে/আবুসাঈদ/২৯

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

ট্যাগ